হামলার ঘটনায় আইএইচটি ছাত্রলীগের ৪ নেতা বহিষ্কার

  নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৬:১০ | অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহী ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজির (আইএইচটি) ছাত্রীদের ওপরে হামলার ঘটনায় শাখা ছাত্রলীগের চার নেতাকে বহিষ্কার করা হয়েছে। একই সঙ্গে ওই শাখার ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে।  

গতকাল বুধবার রাতে আইএইচটি শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে অভিযুক্ত চারজনকে বহিষ্কারের সুপারিশ করে রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নগর ছাত্রলীগ সভাপতি রকি কুমার ঘোষ জানান, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে আইএইচটি শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়া সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ চারজনকে দল থেকে বহিষ্কারের সুপারিশ করে কেন্দ্রে আবেদন জানানো হয়েছিল। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ তাদেরকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয়।

বহিষ্কারকৃতরা হলেন- আইএইচটি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, সহ-সভাপতি মিজান আলী, ফয়সাল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন তুহিন।

এদিকে ছাত্রীদের ওপর হামলার ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করেছে কর্তৃপক্ষ। আইএইচটির সহযোগী অধ্যাপক আনোয়ারুল ইসলামকে প্রধান করে তিন সদস্যের এ কমিটি গঠন করা হয়। আজ বৃহস্পতিবার প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ ডা. সিরাজুল ইসলাম কমিটি গঠনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। কমিটির অন্য দুই হলেন- সহকারী অধ্যাপক সেলিম খান ও দুরুল হুদা।

প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ ডা. সিরাজুল ইসলাম জানান, বুধবারের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে খুব অল্প সময়ের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গতকাল বুধবার সকালে আইএইচটি ছাত্রী হোস্টেলে বহিরাগতদের প্রবেশ ও উৎপাত বন্ধ ও নিরাপত্তার দাবিতে অধ্যক্ষকে অবরুদ্ধ করে বিক্ষোভ করছিলেন ছাত্রীরা। এসময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ক্যাম্পাসে আন্দোলনরত সাধারণ ছাত্রীদের ওপর হামলা চালায়। এ ঘটনায় অন্তত পাঁচজন ছাত্রী আহত হন। বর্তমানে তারা আশঙ্কামুক্ত বলে জানা গেছে।

ঘটনার পর পরিস্থিতি সামাল দিতে একাডেমিক কাউন্সিলের জরুরি সভায় অনির্দিষ্টকালের জন্য প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বুধবার বিকাল ৩টার মধ্যে ছাত্র এবং ৫টার মধ্যে ছাত্রীরা হোস্টেল ছাড়েন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে