এনআরবিসি ব্যাংকের এমডি অপসারণের আদেশ স্থগিত

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৯:৫৫ | আপডেট : ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ২৩:০৩ | অনলাইন সংস্করণ

দেওয়ান মুজিবুর রহমানকে এনআরবি কমার্শিয়াল (এনআরবিসি) ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি)’র পদ থেকে অপসারণ করে বাংলাদেশ ব্যাংকের দেয়া আদেশ স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে বৃহস্পতিবার বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি মো: আতাউর রহমান খানের বেঞ্চ এই স্থগিতাদেশ জারি করেন। একই সঙ্গে তাকে অপসারণের আদেশ কেন অবৈধ ও বেআইনী ঘোষণা করা হবে না তা জানতে আদালত রুল জারি করেছেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরসহ সরকারের সংশ্লিষ্টদের চার সপ্তাহের মধ্যে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এর আগে গত ৫ ডিসেম্বর ঋণ বিতরণে অনিয়ম, অন্যান্য কার্যক্রমে জালিয়াতি ও দায়িত্ব পালনে ব্যর্থতার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় এনআরবিসি’র এমডি দেওয়ান মুজিবুরকে তার পদ থেকে অপসারণের আদেশ দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। এ আদেশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে দেওয়ান  মুজিবুর রহমান হাইকোর্টে রিট করেন। তার রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ। রিটটি দাখিল করে অ্যাডভোকেট হামিদা চৌধুরী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত তালুকদার।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে অ্যাডভোকেট হামিদা চৌধুরী বলেন, আদালত এমডি’র পদ থেকে অপসারণের আদেশ স্থগিত করে রুল জারি করেছেন। এ আদেশের ফলে তার ঐ পদে আপাতত দায়িত্ব পালনে কোন বাধা নেই।

এর আগে প্রায় ৯ মাসের প্রক্রিয়া শেষে ব্যাংক কোম্পানি আইনের ৪৬ ধারায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় গভর্নরের অনুমোদনের পর দেওয়ান মুজিবুর রহমানকে অপসারণ করে চিঠি পাঠায় বাংলাদেশ ব্যাংক।  এছাড়া আগামী ২ বছর কোন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের এমডি পদে তিনি যোগদান করতে পারবেন না বলেও নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। অনেক বোর্ড সভায় পরিচালকদের অনুপস্থিতি সত্ত্বেও বিধি বহির্ভূতভাবে ঋণ অনুমোদন করা হয়েছে। সব মিলিয়ে দশটি গুরুতর অভিযোগের বিষয়ে নিশ্চিত হওয়ার পরই কেন্দ্রীয় ব্যাংক এনআরবি কমার্শিয়ালের এমডিকে অপসারেণের এই নির্দেশ দেওয়া হয় বলে বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে বলা হয়।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে