৪৮ ঘন্টার মাথায় এবার জেলা মহিলালীগের সহ-সভাপতিকে কুপিয়ে জখম

রাঙামাটিতে চলছে আ. লীগের হরতাল

  জিয়াউর রহমান জুয়েল, রাঙামাটি প্রতিনিধি

০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ২০:২১ | অনলাইন সংস্করণ

৪৮ ঘন্টার মাথায় এবার রাঙামাটি জেলা মহিলালীগের সহ-সভাপতি ঝর্ণা খীসা(৫৫)কে এলোপাথারি কুপিয়ে জখম করেছে একদল সন্ত্রাসি। বুধবার রাত ১টার দিকে তার বাসায় ১৫ থেকে ২০ জনের একদল মুখোশপড়া যুবক হামলা চালায়। এতে ঝর্ণা খীসার স্বামী জীতেন্দ্র লাল চাকমা(৬৫) ও তার ছেলে রমন কৃষ্ণ চাকমা(২৩) আহত হন। মাথা ও হাতে মারাতœক জখম ও গুরুতর আহত অবস্থায় ঝর্ণা খীসাকে জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এসময় ভাংচুর করা হয়েছে ঘরের আসবাবপত্র।

ঝর্ণা খীসার স্বামী জীতেন্দ্র লাল চাকমা জানান রাতে মুখোশধারীরা তার ছেলের নাম ধরে দরজা খুলতে বলে। দরজা খুলতেই জোড় করেই ঘরে প্রবেশ করে বিদ্যুতের লাইন বন্ধ করে দেয়। এসময় ঝর্ণা খীসাকে এলোপাথারি কোপানো শুরু করে। বাধা দেয়ায় তাদের উপরও হামলা চালায় তারা। তবে ঝর্ণা খীসার উপর হামলার ঘটনাকে ‘বিচ্ছিন্ন ঘটনা’ বলে মন্তব্য করেছেন রাঙামাটি পুলিশ সুপার সাঈদ তারিকুল হাসান।

এর আগে মাত্র ১১ ঘন্টার ব্যবধানে রাঙামাটির তিন উপজেলায় দুজন খন ও একজনকে কুপিয়ে আহত করা হয়েছে। এদিকে অরবিন্দু চাকমা হত্যার প্রতিবাদে ও পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারের দাবিতে রাঙামাটিতে জেলা আওয়ামীলীগের হরতাল শান্তিপূর্ণভাবে পালিত হচ্ছে। হরতালের কারণে বৃহষ্পতিবার সকাল থেকে জেলার দশ উপজেলায় দূরপাল্লার ও আভ্যন্তরীন সব ধরণের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। খোলেনি দোকান পাটও।

আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। টহল দিচ্ছে সেনাবাহিনী। তবে বেলা ২টায় এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত জেলার কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

হরতালের সমর্থনে শহরের কয়েকটি স্থানে পিকেটিং এর পাশাপাশি মিছিল করেছে যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জুরাছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অরবিন্দু চাকমাকে গুলি করে হত্যা করে দূবৃত্তরা। একই দিন বিলাইছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি রাসেল মার্মাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনার জন্য পাহাড়িদের আঞ্চলিক সংগঠন জেএসএস কে দায়ি করেছে স্থানীয় আওয়ামীলীগ। এ হত্যাকন্ডের প্রতিবাদে হরতাল আহবান করা হয়েছে বলে জানান আওয়ামীলীগের নেতারা।

রাঙামাটি পুলিশ সুপার সাঈদ তারিকুল হাসান বেলা সোয়া ২টায় জানান, সার্বিক আইনশৃঙখলা পরিস্থিতি ভালো আছে। ঝর্ণা খীসার উপর হামলার ঘটনাকে ‘বিচ্ছিন্ন ঘটনা’ বলে মন্তব্য করেন তিনি। এছাড়া দুজন খুন ও একজনের উপর হামলার ঘটনায় দোষীদের  ধরতে অপারেশন চালাচ্ছে আইনশৃঙখলা বাহিনী। তবে জনমনে আতংক তৈরীর বিষয়ে তিনি বলেন, জনমনে আতংক তৈরী হওয়াটা স্বাভাবিক, কিন্তু  আইনশৃঙখলা পরিস্থিতির অবনতির কোন আশংকা নেই।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে