একজন বিপন্ন মাকে সাহায্য করুন: বাঁধনের আকুতি

প্রকাশ | ০৫ অক্টোবর ২০১৭, ১২:১৪ | আপডেট: ০৫ অক্টোবর ২০১৭, ১২:২৭

অনলাইন ডেস্ক

ব্যবসায়ী স্বামী সনেটের সঙ্গে ডিভোর্সের পর শত প্রতিকূলতা সত্ত্বেও একমাত্র মেয়েকে নিয়ে দিন কাটাচ্ছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন। বর্তমানে মেয়ের দেখাশোনা এবং তার সুন্দর ভবিষ্যতের দিকে নজর দেওয়ার জন্য খুব একটা অভিনয়েও সময় দিতে পারছেন না তিনি। এবার সেই মেয়ের জন্যই সকলের কাছে সহযোগিতা চাইলেন বাঁধন।

জানা গেছে, স্বামী সনেট মেয়েকে তার কাছ থেকে ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছেন বলে সম্প্রতি অভিযোগ করেছেন বাঁধন। তিনি বলেছেন, সনেট নাকি মেয়েকে তার কাছ থেকে আলাদা করে কানাডা নিয়ে যেতে চান।

শুধু সনেটই নয়, সনেটের বর্তমান স্ত্রীর কাছ থেকেও একই হুমকি পেয়েছেন বলে জানান বাঁধন। তাই মেয়েকে হারানোর ভয় ও তার ভবিষ্যত নিয়ে তাই সঙ্কিত হয়ে পড়েছেন এ অভিনেত্রী।

বাঁধন বলেন, একজন সংস্কৃতিকর্মী বা গণমাধ্যমের সঙ্গে সম্পর্কিত ব্যক্তি হিসেবে নয়, একজন সাধারণ মানুষ বা একজন বিপন্ন নারী হিসেবেই এ পরিস্থিতি থেকে পরিত্রাণে আপনাদের কাছ থেকে সাহায্য চাই। আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান ও রাষ্ট্রের কাছ থেকে অন্তত নৈতিক সমর্থনটুকু পাবো। এই পরিস্থিতিতে আমার গণমাধ্যমের বন্ধুরা সত্য নিষ্ঠার অঙ্গীকারের প্রতি দায়বদ্ধতাকে সমুন্নত রেখে এ বিপন্নতা থেকে আমাকে উদ্ধার এবং আমার কন্যার নিরাপদ ভবিষ্যতটুকু রক্ষায় সবসময়ের মতোই আমাদের পাশে এসে দাঁড়াবেন বলে আমি প্রত্যাশা করি।

তিনি আরও বলেন, এতদিন আমি ও আমার মেয়ের প্রতি সনেট যে অবহেলা ও দায়িত্বহীনতা দেখিয়েছেন, আমাকে যেভাবে নিগ্রহ করেছেন, আমার সঙ্গে যেসব নির্যাতনমূলক আচরণ করেছেন, আমার বাবা-মা-ভাইসহ আমাদের পরিবার ও আত্মীয়স্বজনদেরকে যে ধরনের উদ্বেগ ও আতঙ্কের মধ্যে রেখেছেন, মা হিসেবে শুধু আমার মেয়ের মানসিক দিকের কথা ভেবে সেসব বিষয় সবসময় চেপে গেছি। মেয়েটিকে সামাজিক অবজ্ঞা বা বিদ্রুপের মুখে পড়তে হবে এই ভয়ে দাম্পত্য সম্পর্ক রক্ষা করতে চেয়েছি। এমনকি তার কাছ থেকে বিয়ে বিচ্ছেদের নোটিশ পাওয়ার পরও সম্পর্কটি পুনরুদ্ধারের চেষ্টা করেছি। কিন্তু গণমাধ্যমে সনেট আমাকে নিয়ে যা যা বলছেন বলে জানতে পারছি, তা শুধু অরুচিকর ও স্থুলই নয়, একইসঙ্গে ভয়াবহ নিষ্ঠুরও বটে। কেননা, তিনি যে চরিত্রহননের মাধ্যমে আমাকে দুর্বল করে দিয়ে আমাকে আমার মেয়ের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন করার উদ্দেশ্যে এসব করছেন, তা এরই মধ্যে স্পষ্ট হয়ে গেছে।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের আগস্টে স্বামী সনেটের সঙ্গে ডিভোর্স হলেও কয়েকদিন আগেই তা গণমাধ্যমে আসে। সেই থেকেই গত কয়েকদিন ধরে মিডিয়া জুড়ে আলোচনা অভিনেত্রীর বিবাহ বিচ্ছেদ ও তার মেয়েকে নিয়ে। মেয়ের সুন্দর ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেই ডিভোর্সের বিষয় গোপন রেখেছিলেন বলে জানান বাঁধন। মেয়েকে যেন তার কাছে রাখতে পারেন সেজন্য গত ৩ আগস্ট মামলাও করেন বাঁধন।