পঞ্চকুলার সংঘর্ষের জন্য টাকা দিয়েছিল হানিপ্রীত

  অনলাইন ডেস্ক

০৭ অক্টোবর ২০১৭, ০৯:৪৭ | অনলাইন সংস্করণ

ভারতের পঞ্চকুলাতে সংঘর্ষের পিছনে মদত জুগিয়েছিলেন হানিপ্রীত৷ স্বঘোষিত গডম্যান বাবা রাম রহিমের ব্যক্তিগত সচিব ও গাড়ির চালক রাকেশ কুমারকে জেরা করে এমনটাই জানতে পেরেছে পুলিশ৷ তদন্তে উঠে এসেছে ধর্ষণকাণ্ডে বাবার শাস্তি হবে এমনটা সম্ভবত আঁচ করতে পেরেছিলেন ‘পাপা কি পরী’৷ তাই সাজা ঘোষণার কয়েক দিন আগে ডেরার শাখা প্রধানকে ১.২৫ কোটি টাকা দিয়েছিলেন তিনি৷

গত ২৫ শে অগষ্ট ধর্ষণকাণ্ডে সাজা ঘোষণা হয় রাম রহিমের৷ সাজা ঘোষাণার পরই জ্বলে উঠেছিল পঞ্চকুলা৷ দ্রুত অশান্তি ছড়িয়ে পড়ে পাজ্ঞাব ও হরিয়ানার বিস্তীর্ণ অঞ্চলে৷ বাবার অনুগামীদের নজিরবিহীন তাণ্ডবে সাক্ষী থাকে গোটা দেশ৷ হিংসার ঘটনার বলি হন ৩৬ জন৷ আহত হন শতাধিক৷ সংঘর্ষের ঘটনার তদন্তে গঠিত হয় স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিম (সিট)৷

তদন্তকারী আধিকারিকরা বাবার ব্যক্তিগত সচিব রাকেশ কুমারকে জেরা করে৷ জেরায় রাকেশ কুমার তদন্তকারীদের চাঞ্চল্যকর তথ্য ফাঁস করে৷ সূত্রের খবর পুলিশি জেরার তিনি জানান, সাজা ঘোষণার কয়েক দিন আগে ডেরা সচ্চা সৌদার পঞ্চকুলা শাখা প্রধান চমকৌর সিংকে ১.২৫ কোটি টাকা দিয়েছিলেন হানিপ্রীত৷

পুলিশের ধারণা সেই টাকা পঞ্চকুলাতে সিবিআই আদালত চত্বরে সংঘর্ষ বাধানোর কাজে ব্যবহার করা হয়েছে৷ রাকেশ কুমার বর্তমানে সিটের হেফাজতে আছে৷ তাকে ২৭শে সেপ্টেম্বর গ্রেফতার করে পুলিশ৷ সাজা ঘোষাণার দিন অর্থাৎ ২৫শে অগষ্ট রাকেশই আদালতে গুরমিত ও হানিপ্রীতকে নিয়ে যান৷ তারপরের দিন হানিপ্রীতকে সে রোহতক থেকে সিরসা নিয়ে যায়৷

পঞ্চকুলার পুলিশ কমিশনার এ সি চাওলা সাংবাদিক সম্নেলনে চমকৌরকে ১.২৫ কোটি টাকা দেওয়ার বিষয়টি মেনে নেন৷ তবে তদন্তের খাতিরে এর থেকে বেশি কিছু প্রকাশ করতে চাননি৷

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে