১৫৯ ঘন্টা ওভারটাইম করায় নারী সাংবাদিকের মৃত্যু!

  অনলাইন ডেস্ক

০৭ অক্টোবর ২০১৭, ১৩:১৬ | অনলাইন সংস্করণ

জাপানের কর্মসংস্কৃতি পৃথিবীর অন্য দেশ থেকে আলাদা। এখানে ওভারটাইমে কাজ করাটাই নিয়ম। কেউ সময়মতো অফিস থেকে বেরুতে পারেন না। প্রয়োজনে এক সপ্তাহ এমনকি তারও বেশি অফিসে কাটিয়ে দিতে হয়। কাজের চাপ এমনই।

দেশটির রাজধানী টোকিওতে এক মাসে ১৫৯ ঘণ্টা ওভারটাইম করতে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে এক নারী সাংবাদিকের। ৩১ বছর বয়সী মিয়া সাডো পাবলিক ব্রডকাস্টার এনএইচকে’র সদর দপ্তরে কাজ করতেন। মিয়ার হার্টের সমস্যা ছিল। তা সত্ত্বেও এক মাসে ১৫৯ ঘণ্টা ওভারটাইম করেন তিনি। ওই মাসে ছুটি নেন মাত্র ২ দিন। যার ফলে এই করুণ পরিণতি ঘটে।

দেশটির গণমাধ্যম জাপান টাইমস এ খবর প্রকাশ করেছে।

গণমাধ্যমটি জানায়, ২০১৩ সালে জুলাইতে এই রাজনৈতিক রিপোর্টারের মরদেহ পাওয়া যায় বিছানার ওপরে। মৃত্যুর সময় সাডোর বয়স ছিল মাত্র ৩১ বছর। সম্প্রতি তার পরিবারের করা মামলার পর বিষয়টি সামনে এসেছে।

ঘটনার এক বছর পর জাপানের কর্মকর্তারা বলেন, তার মৃত্যু অতিরিক্ত কর্মঘণ্টার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। মৃত্যুর আগের মাসে মাত্র দুদিন ডে-অফ নিয়েছিলেন তিনি। মৃত্যুর ঘটনার চার বছর পরে এসে সাডোর মা-বাবার চাপের মুখে এনএইচকে মামলাটি সবার কাছে উন্মুক্ত করেন।

সাডোর বাবা-মা বলেন, এ ধরনের ঘটনা যেন পুনরাবৃত্তি আর না ঘটে সেজন্য পদক্ষেপ নেওয়া হোক।

২০১৩ সালে টোকিও অ্যাসেম্বলি ইলেকশন কভার করেছিলেন সাডো। এর পরের মাসে জাতীয় সংসদের জন্য উচ্চ কক্ষের ভোটও কভার করেন তিনি। এর তিনদিন পরেই মারা যান সাডো।

সহকর্মীরাই মিয়ার মৃত্যুর খবর সামনে আনেন। এ ঘটনায় জাপান সরকার এবং ওই সংস্থার ওপর বেশ চাপ বাড়া শুরু হয়। এতো বেশি সময় কাজ করার ফলে অনেকেই অসুস্থ তো হচ্ছেনই পাশাপাশি মৃত্যুর সম্ভাবনাও তৈরি হচ্ছে। ফলে কাজ ও বিশ্রামের সমতা তৈরি করার দাবি এরইমধ্যে উঠতে শুরু করেছে।

এর আগে ২০১৫ সালে মাতসুরি তাকাহাসি নামে এক ২৪ বছরের নারী আত্মহত্যা করেন। কাজের চাপে অবসাদে তিনি আত্মহত্যা করেন। কারণ সেই মাসে ১০০ ঘণ্টার বেশি ওভারটাইম করে ফেলেছিলেন তিনি। এভাবেই ২০১৬ সালে ২ হাজার জাপানি কাজের চাপে আত্মহত্যা করেছেন।

জাপান এ অবস্থা থেকে দ্রুত বেরিয়ে আসবে বলে এরইমধ্যে প্রতিজ্ঞা করেছে শিনজো আবে সরকার। ওভারটাইম রীতির সংস্কার করা হবে বলেও জানানো হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে