ভেনেজুয়েলায় ভোটকেন্দ্রে গুলিতে নারী নিহত

  অনলাইন ডেস্ক

১৭ জুলাই ২০১৭, ১০:৪৯ | অনলাইন সংস্করণ

ভেনেজুয়েলায় বিরোধী দলগুলোর আয়োজিত এক অনানুষ্ঠানিক গণভোটে বন্দুকধারীদের হামলায় এক নারী নিহত হয়েছেন। গতকাল রোববার রাজধানী কারাকাসের ক্রাতিয়া এলাকার একটি বুথের বাইরে ভোটের লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় তিনি গুলিবিদ্ধ হন। খবর বিবিসির।

খবরে বলা হয়, নিহত নারীর নাম জিওমারা সোলেদাদ স্কট (৬১)। তিনি নার্সের কাজ করতেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মোটরবাইকে আসা বন্দুকধারীরা ভোট দেওয়ার অপেক্ষায় থাকা লোকজনের ওপর গুলি চালালে চারজন আহত হন। হাসপাতালে নেওয়ার পরপরই জিওমারা মারা যান।

বিরোধীরা এ হামলার জন্য ‘আধাসামরিক’ বাহিনীর সদস্যদের দায়ী করেছেন। ভিডিও ফুটেজে গুলির পরপরই আতঙ্কিত লোকজনকে দৌড়ে কাছাকাছি চার্চের দিকে পালিয়ে যেতে দেখা গেছে।

তদন্ত কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তারা এ হামলার ঘটনা খতিয়ে দেখছেন।

২০১৮-র আগেই নতুন নির্বাচনের দাবিতে বিরোধীরা এ গণভোটের আয়োজন করেছিল। বিভিন্ন এলাকার নাট্যমঞ্চ, খেলার মাঠ ও চৌরাস্তার মাথায় বসেছিল বুথ। বুথগুলোতে ভোটারদের দীর্ঘ সারি দেথা গেছে বলে বিবিসির প্রতিনিধি জানিয়েছেন।

ভেনেজুয়েলার বাইরে শতাধিক দেশে ছড়িয়ে থাকা প্রবাসীদের জন্যও ভোটের আয়োজন করা হয়েছিল বলে দাবি বিরোধী দলগুলোর।

মাদুরো এই গণভোটকে ‘অর্থহীন’ অ্যাখ্যা দিয়েছেন।

৩০ জুলাই দেশটিতে আনুষ্ঠানিক এক গণভোট হওয়ার কথা, যেখানে একটি নতুন অ্যাসেম্বলির প্রস্তাব করা হয়েছে যারা সংবিধান সংশোধন ও রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান বিলুপ্তির এখতিয়ার রাখবে।

সমালোচকরা বলছেন, নতুন এই সাংবিধানিক অ্যাসেম্বলি মাদুরোর ‘একনায়কতন্ত্র’কে আরো দীর্ঘায়িত করবে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ভেনেজুয়েলা গভীর অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক সঙ্কটকাল অতিক্রম করছে। বিরোধী দলগুলো প্রেসিডেন্ট মাদুরোর শাসনের অবসানে তুমুল আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে।

চলতি এপ্রিলের পর থেকে কেবল রাজনৈতিক সংঘর্ষেই দেশটিতে ১০০ জনেরও বেশি নিহত হয়েছে বলে বিবিসি জানিয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে