মানবতাই হোক ভালোবাসা দিবসের মূলমন্ত্র

  আয়েশা সিদ্দিকা

১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ১২:২৩ | আপডেট : ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ১২:৫৭ | অনলাইন সংস্করণ

কিংবদন্তী গায়ক ভূপেন হাজারিকা যথার্থই গেয়েছিলেন-

‘মানুষ মানুষের জন্য
জীবন জীবনের জন্য
একটু সহানুভূতি কি
মানুষ পেতে পারে না…ও বন্ধু।।’

মানবতার কথা আসলেই আমাদের মানসপটে ভেসে উঠে ভূপেন হাজারিকার এই কালজয়ী গানটি। মানুষের সহজাত ধর্মই হলো বিপদে অন্যের পাশে দাঁড়ানো, অন্যকে ভালোবাসা। একটু সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলেই যদি একটি প্রাণ বাঁচে, একজন মানুষ বাঁচার স্বপ্ন দেখে এটাই তো জীবনের সার্থকতা। নিজের ইচ্ছায় কিংবা কখনও অজান্তেই আমরা অন্যের পাশে দাঁড়াই। এমনটি হয় তার কারণ কিন্তু একটাই, আমাদের মনে ভালোবাসা আছে, আমরা ভালোবাসতে জানি।
 
কবি হেলাল হাফিজ তার এক কবিতায় বলেছেন- ‘তোমার জন্য সকাল, দুপুর তোমার জন্য সন্ধ্যা/ তোমার জন্য সব গোলাপ এবং রজনীগন্ধা’। ভালোবাসাটা অনেকটা এ রকমই। যাকে ভালোবাসা যায় তার জন্য জীবনের সবসময়, সব আনন্দ, সব সুন্দর উজাড় করে দেওয়া যায়।
 
আজ ১৪ ফেব্রুয়ারি, বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। এই দিনে ভালোবাসা যে শুধু প্রেমিক- প্রেমিকা বা স্বামী-স্ত্রীর মধ্যেই সীমাবদ্ধ এমনটি নয়। বরং বিশ্ব ভালোবাসা দিবস হলো সব বয়সের, সব শ্রেণি-পেশার মানুষের জন্যই।

কিন্তু বর্তমানে ভালোবাসা অত্যন্ত ছোট্ট একটি শব্দে পরিণত হয়েছে, হারিয়েছে এর বিশালত্ব। ভালোবাসা যেন আজ মানুষকে আরও ছোট করে, মনকে বানিয়ে দেয় সংকীর্ণ। যার কারণে কোন সম্পর্কে জড়ানোর আগে প্রেমিক পুরুষ দিন-দুনিয়া নিয়ে ভাবলেও, সম্পর্কে জড়ানোর পর তার মানসপটে থাকে শুধু রিলেশন নিয়ে চিন্তা বা দুশ্চিন্তা। তারা তখন আরও বেশি আত্মকেন্দ্রিক ও স্বার্থপর হয়ে পড়েন। তাই ভালোবাসাকে কেবল দুইয়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ করে না রেখে সবার মধ্যে ছড়িয়ে দিতে হয়। এখানেই ভালোবাসার মাহাত্ম্য।

এ ভালোবাসা যেমন- মা-বাবার প্রতি সন্তানের, তেমনি হিংসা-বিদ্বেষ ভুলে মানুষে মানুষে ভালোবাসা দিনও এটি। তবে ভালোবাসা একটি বিশেষ দিনের জন্য নয়। সারা বছর, সারা মাস, সারা দিন, সারাটি জীবন ভালোবাসার। যে দেশ ও সমাজে আমরা বেড়ে উঠেছি, সেই দেশ, সমাজ ও দেশের মানুষও আমাদের কাছ থেকে ভালোবাসা প্রত্যাশা করে। কাজেই সবাইকে ভালোবাসার মধ্য দিয়েই সারা বিশ্বে শান্তি ও সম্প্রীতি বার্তা ছড়িয়ে দিন।

মনে রাখবেন, বিশ্ব ভালোবাসা দিবসের এই একটি দিনে ভালোবাসা বাড়ানো কিংবা কমানো যায় না। তবে এই দিনে এসে অন্তত এইটুকু উপলব্ধি করা যায়, ভালোবাসা ছাড়া সম্পর্কগুলো মূল্যহীন। কেবল ভালোবাসাই পারে আমাদের সম্পর্কগুলোকে পুর্নজ্জীবিত করতে, আমাদের আত্মার বন্ধনকে আরও দৃঢ় করতে।

মানুষ মানুষের জন্যই। বিপদে-আপদে, সমস্যা-সংকটে ছুটে এসে সাহায্য করবে—এমন প্রত্যাশা মানুষ মাত্রই করতে পারে। কাজেই আমি, আপনি, সে- আমরা সকলেই যদি বিপদে-আপদে একে অপরের পাশে দাড়াই তাহলে দেখবেন জীবনটা আরও সুন্দর হয়ে গেছে। আর এটাই হোক বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে আমাদের অঙ্গীকার। 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে