সুখী দাম্পত্যে বয়সটা শুধুই একটি সংখ্যা

  আয়েশা সিদ্দিকা

০৩ এপ্রিল ২০১৭, ১৫:০৪ | আপডেট : ০৩ এপ্রিল ২০১৭, ১৫:৩৮ | অনলাইন সংস্করণ

সাধারণত প্রেমের ক্ষেত্রেই সঙ্গিনী বয়সে বড় থাকেন। কেউ কেউ নিজের পছন্দেই বয়সে বড় সঙ্গী বেছে নেন। কেউ আবার পাবিবারিকভাবেই বেশি বয়সের সঙ্গী বিয়ে করেন। তবে যেভাবেই জীবনসঙ্গী বেছে নিন না কেন, বয়সের তারতম্য হলে দাম্পত্যে নানা সমস্যা দেখা দিবে এটাই স্বাভাবিক। তবে সবারই যে সমস্যা হবে এমন কোন কথা নেই। বয়সে কম বা বেশি যাই হোক না কেন যে কোন সম্পর্কই মূলত গড়ে উঠে বোঝাপড়া ও ভালোবাসার উপর ভিত্তি করে। কাজেই সুখী হতে দুজনের সম্পর্কের বন্ধনটা আরও দৃঢ় করুন। সেইসঙ্গে নিয়মিত চর্চা করুন এমন কিছু বিষয় যার কারণে বয়সের পার্থক্যটা আপনার কাছে মনে হবে শুধু একটি সংখ্যা।

এক্ষেত্রে করবেন যেসব কাজ-

সাহায্য নিন
যে কোন দরকারে আপনার স্ত্রীর সাহায্য নিন। যেহেতু তিনি বয়সে বড় তাই হয়তো তার অভিজ্ঞতা আপনার যে কোন কাজে লাগতে পারে।

অভিজ্ঞতা শেয়ার করুন
যেহেতু আপনারা আলাদা সময়ে বড় হয়েছেন তাই আপনাদের দুজনের জীবনের ধারা একেবারেই আলাদা। কাজেই নিজেদের মধ্যে জীবনের অভিজ্ঞতাগুলো শেয়ার করুন। এতে সব ব্যাপার ভালমতো মানিয়ে নিতে পারলে আপনাদের জীবন অনেক বৈচিত্র্যপূর্ণ হয়ে উঠবে। আপনারা কে কি সামলে নিয়ে এগিয়ে গেছেন তা জানা থাকলে যে কোনো কঠিন পরিস্থিতে মানিয়ে চলা সহজ হবে।

সময়ের সঠিক ব্যবহার
আপনাদের বেড়ে উঠার সময় ও পরিবেশ ভিন্ন। তাই সে সময়ের সঙ্গে আজকের সময়টার সঠিক ব্যবহার করতে পারলে দেখবেন তা আপনাদের সন্তানের জন্য হয়ে উঠবে আশীর্বাদস্বরূপ। তাদের জীবনে নানান বৈচিত্র্যের সমাগম ঘটবে, ফলে পরবর্তীতে তা তাদের জীবন গড়তে সহায়তা করবে।

সম্পর্ক নিবিড় হয়
বয়সের পার্থক্য কখনো কখনো আশীর্বাদ রুপে আসে। যেহেতু আপনাদের বয়সের পার্থক্য বেশি তাই একে অন্যকে বুঝে নিতেই সময় পার করতে হয় অনেক। এই সময় পার করার ফলেই সম্পর্ক আরও গাঢ় ও নিবিড় হয়ে উঠে।

ঝগড়া করবেন না
বয়স বেশি বলে লোকে নানা কথা বলবেই। কেননা লোকের কাজই হচ্ছে অন্যের সমালোচনা করা। কাজেই সেসবে কান দিয়ে পরস্পরের সঙ্গে ঝগড়া করতে যাবেন না। এতে সম্পর্ক অনেক ভালো থাকবে।

হুকুম খাটাবেন না
স্ত্রী বয়সে বড় বলেই সর্বদা স্বামীর উপরে হুকুম খাটাবার চেষ্টা করবেন না। তাতে সমস্যা কেবল বাড়বেই। মনে রাখবেন, দাম্পত্যে সকলেই সমান। কেউ বড় বা ছোট নয়।

সামাজিকতা এড়াবেন না
অনেকেই লোকে কি বলবে এই ভয়ে সামাজিকতা এড়িয়ে চলেন। এটা কিন্তু একেবারেই ঠিক নয়। মনে রাখবেন, পরস্পরের জন্য ভালোবাসাই আপনাদের সম্পর্কের সৌন্দর্য।

যদিও বিশ্বের কোন ধর্মেই সঙ্গিনী নির্বাচনের ক্ষেত্রে বয়স বিষয়ক কোন নিষেধাজ্ঞা নেই। আসলে বয়সের এই বিধিনিষেধ ধর্মের দিক থেকে নয়, বরং তা এসেছে আমাদের সামাজিক দৃষ্টিকোণ থেকে। যেহেতু ব্যাপারটি এখনও সামাজিক বা পারিবারিকভাবে ততটা স্বীকৃত হয়ে ওঠেনি। তাই বয়স যাই হোক না কেন, স্বামী স্ত্রীর মধ্যে সত্যিকারের ভালোবাসার পাশাপাশি পারস্পারিক বোঝাপড়া ও শ্রদ্ধাবোধ অটুট রাখুন। দেখবেন আপনারাই হয়ে উঠবেন সবচেয়ে সুখী দম্পতি।

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে