বর্ষায় ত্বকের যত্নে কিছু টিপস

  অনলাইন ডেস্ক

১৩ জুলাই ২০১৭, ১৪:৫৮ | আপডেট : ১৩ জুলাই ২০১৭, ১৫:০১ | অনলাইন সংস্করণ

এখন বর্ষার মৌসুম চলছে। এ সময়টাতে আবহাওয়া ক্ষণে ক্ষণে রূপ বদলায়। কখনো মুষলধারে বৃষ্টি, আবার কখনো ঘাম ঝরানো রোদ। গরম ও ঠাণ্ডা মেলানো এই আবহাওয়া আমাদের শরীরের জন্য মোটেই সুখকর নয়। এ আবহাওয়ার সঙ্গে আমাদের ত্বকও সহজে মানিয়ে উঠতে পারে না। ফলে ত্বক হয়ে ওঠে নিস্তেজ ও রুক্ষ। এ সময় চারদিকে ময়লা ও দূষিত পানি প্রবাহিত হওয়ায় চর্মরোগ সহ আরও নানা সমস্যা দেখা দেয়। তাই ত্বকের সুরক্ষায় বর্ষায় একটু আলাদা করেই যত্ন নিতে হয়।

এক্ষেত্রে বর্ষাকালে ত্বকের যত্নে যা করবেন-

ত্বক পরিষ্কার

বর্ষাকালে ত্বকে ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ বেড়ে যায়। ফলে ব্রণ উঠার প্রবণতাও বাড়ে। তাই ত্বকের সুরক্ষায় প্রতিদিন অনন্ত ২-৩ বার মুখ ভালোভাবে পরিষ্কার করুন। আর বিছানায় যাওয়ার আগে অবশ্যই ত্বক পরিষ্কার করতে ভুলবেন না। তা না হলে ত্বকের ক্ষতি অনিবার্য।

টোনার ব্যবহার

আপনার ত্বক যদি শুষ্ক হয়, তাহলে অবশ্যই এই মৌসুমে টোনার ব্যবহার করবেন। এটি আপনার ত্বকের পিএইচ-এর স্তর ঠিক রাখতে সাহায্য করে। অন্যদিকে তৈলাক্ত ত্বকে পানির মাত্রা বেশি থাকে। এ ধরণের ত্বকের যত্নে অ্যাস্ট্রিনজেন্ট ব্যবহার করতে পারেন।

জেল-ভিত্তিক ক্রিম ব্যবহার

বর্ষাকালে ত্বকের ময়শ্চারাইজার ধরে রাখার প্রয়োজন হয়। কেননা এ সময় আবহাওয়া আর্দ্র থাকায় তা আপনার ত্বককেও পানিশূন্য করে। ফলে ত্বক নিস্তেজ দেখায়। তাই এ সময় ত্বকের উজ্বলতা ফিরিয়ে আনতে জেল-ভিত্তিক ক্রিম ব্যবহার করুন।

সানস্ক্রিন দিতে ভুলবেন না

এই মৌসুমে সূর্যের অতিেবেগুণি রশ্মির হাত থেকে বাঁচতে বাইরে বের হওয়ার আগে অবশ্যই সানস্ত্রিন ব্যবহার করুন। ভালো ফলাফলের জন্য বের হওয়ার কমপক্ষে ১৫ মিনিট আগে এটি ব্যবহার করুন।

মেকআপ এড়িয়ে চলুন

বর্ষাকালে যতটা সম্ভব মেকআপ থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করুন। তা না হলে ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণে ত্বকে ছিদ্রের সৃষ্টি হতে পারে।

ফেসিয়াল

স্বাস্থ্যকর ত্বক পেতে সপ্তাহে অন্তত একবার এক্সফ্লোয়েশন করার চেষ্টা করুন। এতে শুধু ত্বকের মরা চামড়াই দূর হবে না, একইসঙ্গে ভেতর থেকেও ত্বক পরিষ্কার থাকবে।

শাকসবজি ও ফলমূল খান

বর্ষার সময় ত্বকের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় প্রচুর পানি পান করুন। একইসঙ্গে নানা ধরনের ফলমূল ও সবজি বিশেষ করে আম, কাঠাল, আনারস, বেল, কলা, পেয়ারা, শসা, গাজর, পাতিলেবু ও জাম্বুরা প্রভৃতি খাওয়ার চেষ্টা করুন। এতে সংক্রমণের হাত থেকেই রক্ষা পাওয়ার পাশাপাশি ত্বকের সুস্থতাও নিশ্চিত হবে।

তথ্যসূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে