সুন্দরবনে নেকড়ের সন্ধান!

  অনলাইন ডেস্ক

১৮ এপ্রিল ২০১৭, ১০:০৩ | আপডেট : ১৮ এপ্রিল ২০১৭, ১২:২১ | অনলাইন সংস্করণ

সুন্দরবনের নাম এত দিন ধরে সবার মুখে মুখে ফিরত রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের জন্য। এবার সেই জঙ্গলেই দেখা মিলল নেকড়ের (Canis lupus pallipes), তাও আবার ম্যানগ্রোভে ভরা জলাজমিতে।তবে সুন্দরবনের বাংলাদেশ অংশে নয়, ভারতীয় অংশে।

গত ১৪ এপ্রিল ঋদ্ধি মুখোপাধ্যায় নামে এক ভ্রমণপিপাসুর ক্যামেরায় সজনেখালির খানিকটা দূরে, সুন্দরবন ব্যাঘ্র প্রকল্পের বাফার এরিয়ায় জ্যোতিরামপুর জঙ্গলে একটি নেকড়ের ছবি ধরা পড়ে।

এঘটনায় নড়েচড়ে বসেছে রাজ্য বন দপ্তরও। নেকড়ের অস্তিত্ব সম্পর্কে নিশ্চিত হতে ক্যামেরা ট্র্যাপও বসিয়ে দেওয়া হয়েছে ওই অঞ্চলে। বিষয়টি বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞদের কাছে বিস্ময়ের এই কারণেই যে, সুন্দরবনের জীববৈচিত্রের ইতিহাসে নেকড়ের উল্লেখই নেই ছবি তো দূরের কথা। তাছাড়া ভারতীয় উপমহাদেশেও কোনও ম্যানগ্রোভ অরণ্যে নেকড়ের বসবাস রয়েছে, এমন নজির মেলেনি। বাঘ এবং নেকড়ের সহাবস্থানের উদাহরণও খুব একটা নেই।

ভারতীয় নেকড়ে আইইউসিএন রেড লিস্টে বিপন্ন প্রজাতির তালিকায়, ভারতেও বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ আইন (১৯৭২ ) অনুযায়ী এটি শিডিউল ১ -এর তালিকায় রয়েছে। অর্থাৎ এই প্রাণীকে মারা তো দূর, এর কোনও রকম ক্ষতি করলেই কঠিন সাজার বিধান রয়েছে। তার উপর নেকড়ের বাসস্থান মূলত শুকনো ঝোপঝাড়ে ভরা জঙ্গল, ঘাসজমির জঙ্গল এবং কিছুটা কৃষিজমি এলাকায়।

গুজরাট, রাজস্থান, হরিয়ানা, উত্তর ও মধ্যপ্রদেশ এবং অন্ধ্রের জঙ্গলে এই প্রজাতির নেকড়ের সন্ধান মেলে।

ঋদ্ধির জানায়, আমরা পর্যটনের কাজে সুন্দরবন পৌঁছেছিলাম বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ। তখনই স্থানীয় লোকজন আমাদের বলেন কুকুর বা শেয়ালের মতো দেখতে জন্তু কয়েকদিন ধরেই ছাগল, মুরগি জ্যোতিরামপুরের গ্রাম থেকে নিয়ে উধাও হয়ে যাচ্ছে। আমরা তিন বন্ধু কৌতুহল বশেই সেটা দেখতে যাই। পৌঁছে দেখি জঙ্গলের পাশেই লোকালয়।

আর জন্তুটি সেখান থেকে তাড়া খেয়ে দৌঁড়োচ্ছে। প্রথমে বুঝিনি কী ওটা। তার পর খানিকটা পরে সে জঙ্গলের ধারে আসতে ছবি তুলি। নিজে খুব নিশ্চিত ছিলাম না। বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলে নিশ্চিত হই, এটা নেকড়ে। কোথা থেকে এল জানি না, তবে ছবিটা তুলতে পেরে সত্যিই আনন্দ হচ্ছে।

রাজ্যের প্রধান মুখ্য বনপাল প্রদীপ ব্যাস জানিয়েছেন, ছবিটা নেকড়ের ঠিকই। তবে এখনই আমরা নিশ্চিত বলছি না ছবিতে দেখানো এলাকাটা সুন্দরবন। এমন খবর আসার পর আমরা খোঁজ নিতে শুরু করেছি। নিজেরা ছবি পেলে তবেই বলতে পারব। সূত্র: এই সময়। 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে