advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সেই সাইফুল ইসলামকে পাসপোর্ট ফেরত দেননি হাইকোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক
১০ জানুয়ারি ২০১৯ ২০:১৯ | আপডেট: ১০ জানুয়ারি ২০১৯ ২০:২৬
advertisement

এবি ব্যাংক লিমিটেডের ২০ দশমিক ০২৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৬৫ কোটি টাকা) আত্মসাতের মামলায় আসামি মো. সাইফুল হকের পাসপোর্ট ফেরত দেননি হাইকোর্ট। আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কেএম হাফিজুল আলমের বেঞ্চ রিট খারিজ করে এই আদেশ দেন।

আদালতে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশি আলম খান, রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক। আসামি পক্ষে ছিলেন আইনজীবী শাহ মঞ্জুরুল হক।

খুরশীদ আলম খান জানান, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সাইফুল হকের পাসপোর্ট জব্দ করেন। পরে তিনি হাইকোর্টে রিট করেন। গত বছরের ৩১ মে হাইকোর্ট রুল জারি করে পাসপোর্ট ফেরত দিতে অন্তবর্তীকালীন আদেশ দেন। এ আদেশের পর আপিলে আবেদনের পর তা স্থগিত করে রুল নিষ্পত্তির নির্দেশ দেন। সে অনুসারে হাইকোর্টে রুল শুনানি শেষে বৃহস্পতিবার তা খারিজ করে দেন। ফলে সাইফুল হকের পাসপোর্ট জব্দই থাকবে।

জানা যায়, ভুয়া অফসোর কোম্পানিতে বিনিয়োগের আড়ালে ২০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং বিনিয়োগের কনসালটেন্সি ফি বাবদ ২৫ হাজার মার্কিন ডলার (সর্বমোট ২০ দশমিক ০২৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার) এবি ব্যাংক লিমিটেডের চট্টগ্রামের ইপিজেড শাখার অফসোর ব্যাংকিং ইউনিট হতে দুবাইতে পাচার করে আত্মসাৎ করে। বিষয়টি তদন্ত করে দুদকের সহকারী পরিচালক মো. গুলশান আনোয়ার প্রধান গত বছরের ২৫ জানুয়ারী মতিঝিল থানায় আট জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

advertisement