advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মিরাজদের উড়িয়ে জয়ের ধারায় ফিরলেন তামিমরা

১১ জানুয়ারি ২০১৯ ২২:১৫
আপডেট: ১১ জানুয়ারি ২০১৯ ২২:৩২
নজরুল মাসুদ, আমাদের সময়
advertisement

জয়ের ধারায়  ফিরল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। প্রথম ম্যাচে জয়ের পর দ্বিতীয় ম্যাচে এসেই হোঁচট খায় ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে এসেই জয়ের ধারায় ফিরেলেন তামিম-কায়েসরা। রাজশাহী কিংসকে পাঁচ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হারায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। 

শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হওয়া ম্যাচে কুমিল্লাকে ১২৫ রানের টার্গেট দেয় রাজশাহী। তারকা ব্যাটসম্যানদের নিয়া গড়া কুমিল্লার জন্য এটা মামুলি টার্গেটই। ৭ বল হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় সাবেক চ্যাম্পিয়নরা। 

কুমিল্লার ব্যাটিং অর্ডারেও আজ দেখা যায় ভিন্নতা। ওপেন করতে নামেন বিজয়-লুইস। নিয়মিত ওপেনার তামিম নেমেছেন দুই নম্বরে। দুই ওপেনার ব্যাট থেকেই রান পায় কুমিল্লা। ৬৫ রানে লুইসের আউটের মাধ্যমে ভাঙে ওপেনিং জুটি। লুইসের ব্যাট থেকে আসে ২৮ রান। সর্বোচ্চ ৪২ রান করেন বিজয়। ৩২ বলে ৪টি চার ও ১টি ছয়ের মারে তিনি এ রান করেন। তামিম ইকবালের ব্যাট থেকে আসে ২১ রান। 

মাত্র ২ রানে কায়েসের সঙ্গে ভুল বুঝাবুঝিতে রানআউট হয়ে সাজঘরে ফিরে যান শোয়েব মালিক।  আফ্রিদি ৯ ও ডওসন ১২ রানে অপরাজিত থেকে দলকে জিতিয়ে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। 

টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই চমক দেখান রাজশাহীর অধিনায়ক মেহেদী মিরাজ। ব্যাট হাতে তিনিই নামে ওপেন করতে। শুরুও করেছিলেন দুর্দান্ত। তার ব্যাট থেকে আসে ৩০ রান। যেটি দলের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। অবশ্য সর্বোচ্চ ৩২ রান আসে টেল এন্ডার ব্যাটসম্যান ইসুরু উদানার ব্যাট থেকে। তিনি আউট হন ৩২ রান করে। মিরাজ ছাড়া টপ অর্ডার-মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানরা বড় রান করতে ব্যর্থ হন। 

মোহাম্মদ হাফিজ ১৬ ও জাকির হোসেন করেন ২৭ রান।  এ ছাড়া কেউ দেখেননি দুই অংকের মুখ। কুমিল্লার হয়ে দুর্দান্ত বল করেন শহীদ আফ্রিদি। তিনি চার ওভার বল করে মাত্র ১০ রান দিয়ে তুলে নেন দিন উইকেট। মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন-রনি-ডওসন প্রত্যেকের ঝুলিতে জমা হয় দুকই উইকেট করে। 

advertisement