advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মুক্তিপণের টাকা নিতে এলেন ‘অপহৃত যুবক’!

চকরিয়া প্রতিনিধি
১২ জানুয়ারি ২০১৯ ১৯:৩৫ | আপডেট: ১২ জানুয়ারি ২০১৯ ১৯:৩৫
advertisement

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলায় একটি গ্রামে বাবার থেকে টাকা নিতে অপহরণের নাটক সাজানোর অভিযোগ উঠেছে তার ছেলে মো. রাসেলের (২৫) বিরুদ্ধে। আজ শনিবার ওই ছেলেকে উদ্ধারের পর পুলিশ এ তথ্য জানতে পারে। 

ঘটনাটি ঘটেছে চকরিয়া পৌরসভার করাইয়াঘোনা গ্রামে। গত বৃহস্পতিবার রাতে এই কথিত অপহরণের প্রায় ৩৬ ঘণ্টার পর আজ মো. রাসেলকে উদ্ধার করে পুলিশ। চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার আমিরাবাদ স্টেশনের একটি বিকাশের দোকান থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। 

চকরিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আলমগীর আমাদের সময়কে জানান, গত বৃহস্পতিবার রাতে অপহরণের নাটক সাজান রাসেল। নিজেকে অপহৃত দেখিয়ে তার বাবার কাছ থেকে ৫ লাখ টাকা নিতে চাইছিলেন তিনি। ওই রাতে উপজেলার চিরিংগা স্টেশন থেকে অপহরণ করা হয়েছে এবং মুঠোফোনে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়।

পরে এ বিষয়ে থানায় একটি অভিযোগ করে রাসেলের বাবা কামাল উদ্দিন। অভিযোগপত্রে লেখা একটি মোবাইল নম্বরের সূত্র ধরে রাসেলকে উদ্ধারের পরিকল্পনা করে চকরিয়া থানা পুলিশ।

এসআই আলমগীর বলেন, ‘ওই মোবাইল নম্বরে ফোন করে আমরা মুক্তিপণ দেব বলে চট্টগ্রামের আমিরাবাদে এক ব্যক্তিকে পাঠাই। পরে দেখা যায়, মুক্তিপণের টাকা নিতে এসেছেন রাসেল নিজেই।’

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, রাসেলকে আমিরাবাদ থেকে চকরিয়া থানায় নিয়ে এসে ঘটনার ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তিনি জানান, অসৎ সঙ্গে জড়িয়ে বিভিন্ন সময় নানা কারণে আর্থিক সমস্যায় পড়েন তিনি। ওই টাকা সংগ্রহের জন্যই নিজের বাবার কাছে থাকা অর্থ নিতে এই নাটক সাজান তিনি। রাসেল বর্তমানে থানা হাজতে রয়েছেন। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী আমাদের সময়কে বলেন, বাবার টাকা হাতিয়ে নিতে অপহরণ নাটক সাজানো রাসেলের বিষয়ে তার বাবার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

advertisement