advertisement
advertisement

কোষ্ঠকাঠিন্য রোগের চিকিৎসা

১২ মার্চ ২০১৯ ১২:২৭ | আপডেট: ১২ মার্চ ২০১৯ ১২:২৭

শারীরিক অস্বস্তিকর সমস্যাগুলোর মধ্যে কোষ্ঠকাঠিন্য একটি। যথাসময়ে সঠিক চিকিৎসা না করালে এ থেকে হতে পারে পাইলস ও কোলন ক্যানসারের মতো মারাত্মক জটিল রোগ। সাধারণত বাজে খাদ্যাভ্যাস, অপুষ্টিকর খাবারসহ বিভিন্ন কারণে মানবদেহে এ ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। তবে এ রোগ থেকে দূরে থাকা যায়।

রোগের প্রাথমিক অবস্থায় চিকিৎসকের পরামর্শে চললে রোগী সম্পূর্ণ ভালো হতে পারেন। তৈলাক্ত, চর্বিজাতীয়, গুরুপাক খাবার কম খেয়ে, ইসবগুলের ভুসি, পরিমাণমতো পানি পান, শাকসবজি, ফলমূল বেশি খেয়ে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করা যায়। কোনো ধরনের যন্ত্রণা ছাড়াই মলদ্বার থেকে তাজা রক্ত পড়লে হোমিও ওষুধে দ্রুত আরোগ্য লাভ সম্ভব।

কোষ্ঠকাঠিন্য, শুকনো মল অতিকষ্টে নির্গত হয়। মলদ্বারে মনে হয়, কতগুলো কাচের টুকরো আছে। খোঁচা লাগে, রক্ত পড়ে, জ্বলে, মলত্যাগের আগে ও পরে মলদ্বারে অত্যন্ত জ্বালা, মল নরম বা শক্ত, যা-ই থাকুক না কেন, যদি রোগী খিটখিটে স্বভাবের হয়, শীতকাতর থাকে, প্রস্রাবে তীব্র গন্ধ, সহজে ঠাণ্ডা লেগে যায়, এমন রোগ নিরাময়েও হোমিও বেশ কার্যকর।

অর্শ বড় হয়ে মলদ্বার বন্ধ হয়ে গেছে। গন্ধহীন রসে কাপড় ভিজে যায়, মলদ্বার জ্বলে, রোগী কাজকর্মে অত্যন্ত ব্যস্ত থাকে-এমন রোগ; মলদ্বার থেকে মাংসধোয়া পানির মতো দুর্গন্ধ, রস ঝরলে সে রোগ নির্মূলেও হোমিও ওষুধ অব্যর্থ। লেখক : হোমিও চিকিৎসক চেম্বার: এইচ-২৩ আমতলী, মহাখালী, ঢাকা ০১৯৭০৫৫৫৯১৯, ০১৭৫২১১৭১৬১