advertisement
advertisement

জিএসপি সুবিধা প্রয়োজন

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৫ মার্চ ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৫ মার্চ ২০১৯ ১১:৪৩

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, তৈরি পোশাক রপ্তানিতে বাংলাদেশ আগেও জিএসপি সুবিধা পেত না মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে। টোব্যাকো, সিরামিক ও প্লাস্টিকের মতো কিছু পণ্যে জিএসপি সুবিধা দেওয়া হতো। তবে রানা প্লাজা দুর্ঘটনার পর তাও স্থগিত করে দেশটি।

তিনি বলেন, জিএসপি স্থগিত থাকায় বাংলাদেশের তেমন আর্থিক ক্ষতি না হলেও ইমেজের ক্ষতি হয়েছে। তাই এ সুবিধা পাওয়াটা দরকার। এ বিষয়ে বাংলাদেশে নবনিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত উদ্যোগ নিতে পারেন।

গতকাল আমেরিকান চেম্বার অব কমার্স ইন বাংলাদেশ (অ্যামচেম) এবং ঢাকার মার্কিন দূতাবাস আয়োজিত ‘২৬তম ইউএস ট্রেড শো-২০১৯’-এর উদ্বোধন শেষে এসব কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

হোটেল সোনারগাঁওয়ে শুরু হওয়া তিন দিনের ট্রেড শোতে এবার যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬ প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের তৈরি পণ্য ক্রয়কারীদের পরামর্শ অনুযায়ী কারখানাগুলোর পরিবেশ উন্নত করা হয়েছে। বিল্ডিং সেফটি ও ফায়ার সেফটি নিশ্চিত করা হয়েছে। শ্রমিকদের অধিকার প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। এখন জিএসপি স্থগিত রাখার কোনো কারণ নেই। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উচিত হবে জিএসপি সুবিধা বাংলাদেশকে ফিরিয়ে দেওয়া। আমেরিকান চেম্বার অব কমার্স ইন বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট মো. নূরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলার।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের বাণিজ্য সম্পর্ক ৪৩ শতাংশ বৃদ্ধির মধ্য দিয়ে ৮০০ কোটি ডলারে উন্নীত হয়েছে। মেলায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উন্নতমানের পণ্য ও সেবার প্রদর্শনীর পাশাপাশি বিভিন্ন পণ্য বিক্রয় হবে। হোটেল সোনারগাঁওয়ের বলরুমে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা চলবে। মেলায় প্রবেশ ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ৩০ টাকা। তবে স্কুলশিক্ষর্থীরা ড্রেস পরে এবং নিজের আইডি কার্ড প্রদর্শন করে ফি ছাড়াই প্রবেশ করতে পারবেন।