advertisement
advertisement

আপিল বিভাগের কাছে খালাস চান খালেদা জিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৫ মার্চ ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৫ মার্চ ২০১৯ ০৮:৫৬

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় হাইকোর্টের দেওয়া ১০ বছরের সাজা থেকে খালাস চেয়ে আপিল বিভাগে আপিল করেছেন কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। আপিল আবেদনে তার জামিন এবং সাজার কার্যকারিতা স্থগিত চাওয়া হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিএনপি চেয়ারপারসনের পক্ষে আপিল করেন তার আইনজীবী ব্যারিস্টার কায়সার কামাল।

এর আগে গত বছর এ মামলায় বিচারিক আদালতের দেওয়া পাঁচ বছরের কারাদণ্ড থেকে খালাস চেয়ে হাইকোর্টে আপিল করেন।

অন্যদিকে দুদক তারা সাজা বৃদ্ধির আবেদন করেন। হাইকোর্ট খালেদা জিয়ার আবেদন খারিজ এবং দুদকের আবেদন মঞ্জুর করে তারা সাজা ১০ বছর করেন।

এ ব্যাপারে খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার কায়সার কামাল বলেন, ‘হাইকোর্ট অযৌক্তিকভাবে এ মামলায় আমাদের বক্তব্য না শুনেই দুদকের আইনজীবীর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে খালেদা জিয়ার সাজা বাড়িয়ে ১০ বছর দিয়েছেন। আমরা এ মামলায় খালাস চেয়ে আপিল বিভাগে আপিল করেছি। এখন অবকাশের পর আবেদন আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতির আদালতে শুনানি করা হবে।’

এ মামলায় গত ৮ বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ রায় দেন। রায়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছর সাজা দেওয়া হয়। খালেদা জিয়ার বড় ছেলে ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান, সাবেক সংসদ সদস্য কাজী সালিমুল হক কামাল, সাবেক মুখ্য সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ ও মমিনুর রহমানকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়। রায়ে খালেদা জিয়াসহ ছয় আসামির সবাইকে ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা ৮০ পয়সা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়। অর্থদণ্ডের টাকা প্রত্যেককে সমঅঙ্কের দেওয়ার কথা বলা হয়। রায় প্রদানের দিন থেকেই খালেদা জিয়া পুরনো ঢাকার পরিত্যক্ত কারাগারে বন্দি আছেন।