advertisement
Dr Shantu Kumar Ghosh
advertisement
Dr Shantu Kumar Ghosh
advertisement
advertisement

মুশফিকের কান্না, তামিমের আর্জি

ক্রীড়া ডেস্ক
১৬ মার্চ ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৬ মার্চ ২০১৯ ১১:১৩

প্রথমে টিম মিটিং। এর পর বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের প্রেস কনফারেন্স শেষে নামাজ। নামাজ শেষ হলে আবার হ্যাগলি ওভালে অনুশীলন হবে। এমনই ছিল টিম বাংলাদেশের সূচি।

ক্রিকইনফোর বিশেষ প্রতিনিধি মোহাম্মদ ইসাম নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে রয়েছেন। তিনি জানান, মুশফিক নামাজ আদায় করতে গিয়ে এমন গোলাগুলি ও আহতদের আহাজারি দেখে মানসিকভাবে আঘাত পান। নামাজ পড়তে পারেননি। ফিরে যান।

কোনো নিরাপত্তাবাহিনী না থাকায় হ্যাগলি পার্কের ভেতর দিয়ে আবার স্টেডিয়ামে ফিরে যান। ড্রেসিং রুমে ফিরে মুশফিক কান্নায় ভেঙে পড়েন। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের বাসটি মাত্র ৫০ গজ দূরে ছিল আল নুর মসজিদ থেকে।

তামিম ইকবাল স্থানীয় সময় দুপুর ১টা ৫২ মিনিটে ইসামকে ফোন দিয়ে বলেছিলেন, ‘এখানে গোলাগুলি হচ্ছে, আমাদের বাঁচান!’ ইসাম প্রথমে মনে করেছেন এটা প্রাঙ্ক হতে পারে। তবে তামিম আবার ফোন দিলে ইসাম ব্যাপারটি নিশ্চিত হন। মাহমুদউল্লাহর প্রেস কনফারেন্স শেষে মুশফিকরা নামাজের জন্য মসজিদের উদ্দেশে রওনা হন। সেখানে এমন পরিস্থিতি দেখে পরবর্তী সময়ে টুইটারে টুইট করেন।

তিনি লিখেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ! আল্লাহ আজ আমাদের বাঁচিয়ে দিয়েছে। ক্রাইস্টচার্চের সেই মসজিদে গুলিবর্ষণ হচ্ছে। আমরা অনেক ভাগ্যবান। এমন দৃশ্য আমরা আর দেখতে চাই না। আর হোক, সেটাও আশা করি না।’ তামিমও টুইটারে লিখেছেন, ‘বন্দুকধারীর গুলি থেকে বেঁচে গেছে গোটা দল। ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা। আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’