advertisement
Dr Shantu Kumar Ghosh
advertisement
Dr Shantu Kumar Ghosh
advertisement
advertisement

'অংশগ্রহণ ফি না দিলে খেলবে না ক্লাবগুলো'

১৯ মার্চ ২০১৯ ১৮:৫২
আপডেট: ১৯ মার্চ ২০১৯ ১৯:৫৬

ফুটবলে দৈন্যদশা নতুন কোনো ঘটনা নয়। দীর্ঘদিন ধরেই এ নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা চলছে। কিন্তু তাতে কর্ণপাতই করছে না বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। সংস্থাটির কর্তাব্যক্তিদের উদাসীনতার কারণে ফিফা র‍্যাংকিংয়ে তলানিতে অবস্থান এখন বাংলাদেশের। প্রিমিয়ার লিগের দ্বিতীয় লেগে অংশগ্রহণ ফি না পেলে লিগে না খেলার হুমকি দিয়েছেন ক্লাব অ্যাসোসিয়েশনের নেতারা।  

ক্লাব অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও আরামবাগের সভাপতি মুমিনুল হক সাঈদ বলেন, ‘আমরা প্রিমিয়ার লিগের দ্বিতীয় লেগে অংশগ্রহণ করব কিনা ভাবছি। দ্বিতীয় লেগের আগে অংশগ্রহণ ফি’র টাকা দিতে হবে। না হলে আমরা ৮টি ক্লাব অঙ্গীকার বদ্ধ লীগ খেলব না।

দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি, প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে বাফুফের এক সদস্যের কটূক্তি নানা ঘটনার পর ঘটনার জন্ম দিয়েই চলেছে বাফুফে। এসব বন্ধের লক্ষ্যে গঠিত বাংলাদেশ ফুটবল ক্লাব অ্যাসোসিয়েশনের ছাতায় এসে জড়ো হয়েছেন দেশের সর্বোচ্চ আসর প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব থেকে প্রথম বিভাগ, দ্বিতীয়, তৃতীয় বিভাগের ক্লাবের কর্তাব্যক্তিরা। আর তাদের নিয়েই গতকাল গঠিত হয়েছে ক্লাব অ্যাসোসিয়েশনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি।

ঢাকার একটি হোটেলে আজ মঙ্গলবার ক্লাব অ্যাসোসিয়েশনের দ্বিতীয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে সভাপতি হিসেবে সাইফ পাওয়ারটেকের কর্ণধার চট্টগ্রাম আবাহনীর ফুটবল কমিটির পরিচালক তরফদার মো. রুহুল আমিনকে সভাপতি এবং আরামবাগ ফুটবল ক্লাবের সভাপতি একেএম মুমিনুল হক সাঈদকে সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করে ৮৭ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠিত হয়। ৮৭ সদস্যের মধ্যে পাঁচ আবার উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য।

তারা হলেন, মোজাফফর হোসেন পল্টু, মনজুর হোসেন মালু, সাবেক তারকা ফুটবলার ইমতিয়াজ সুলতান জনি, আবদুল গাফফার ও বিশিষ্ট ফুটবল সংগঠক শাহাজহান কবির।কমিটিতে মোহামেডান, শেখ জামাল, শেখ রাসেল, মুক্তিযোদ্ধা, সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের বড় ক্লাবের প্রতিনিধিরা রয়েছেন। কমিটিতে আবাহনীর জন্য পদ রাখা হলেও গতকাল ক্লাবটির কোনো পর্যায়ের কর্তারা উপস্থিত ছিলেন না। সভায় ঢাকার ৫৩টি ক্লাবের মোট ৯৪ জন প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি তরফদার রুহুল আমিন বলেন, ‘আমরা বাফুফের কাছে আগামী ১৫ দিনের মাঝে এজিএম এর তারিখ দাবী করছে। তিন বছর হয়ে গেছে এজিএম হয়না, ক্লাবগুলোর অনেক বিষয় জানার ও বলার আছে। কিন্তু এজিএম না হওয়ার জন্য আমরা অনেক কিছু বলতে পারছি না ও জানছি না।’

চারটি বিষয়কে প্রাধান্য দিয়ে ক্লাব অ্যাসোসিয়েশনের সভা কাল অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ও বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে অংশ নেয়া দলগুলোর লিগে অংশগ্রহণ ফি অবিলম্বের প্রদান করতে হবে। বাফুফে তা করলে লিগের দ্বিতীয় লেগ থেকে অংশ নেবে না ক্লাবগুলো। বাফুফে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে বার্ষিক সাধারণ সভার আয়োজন করতে হবে, প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি করা বাফুফের সদস্য মাহফুজা আক্তার কিরণের বিষয়ে বাফুফের অবস্থান পরিষ্কারকরণ এবং সভায় এ বিষয়ে নিন্দা প্রস্তাব গ্রহণ। সর্বশেষ কিরণের বিষয়ে বিসিএল ক্লাব কর্তাদের বক্তব্য লিপিবদ্ধ করে তা ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী কাছে স্মারকলিপি আকারে প্রদান।