advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

রাষ্ট্র এখন কিছু মানুষের

কেশবপুর প্রতিনিধি
২২ মার্চ ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২২ মার্চ ২০১৯ ০৮:৪৮
advertisement

বিশিষ্ট মানবাধিকারকর্মী ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা সুলতানা কামাল বলেছেন, আমরা মুক্তিযুদ্ধ করেছিলাম সব ধরনের বৈষম্যের বিরুদ্ধে। আমরা চেয়েছিলাম বাংলাদেশ এমন এক দেশ হবে, যেখানে কোনো ধরনের বৈষম্য থাকবে না। কিন্তু রাষ্ট্র এখন কিছু কিছু মানুষের রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে। প্রতিনিয়ত হরণ করা হচ্ছে মানুষের বাকস্বাধীনতা।

গতকাল দলিত জনগোষ্ঠীর মানবাধিকার এবং মর্যাদা প্রতিষ্ঠায় যশোরের কেশবপুরে আয়োজিত এক সমাবেশে এসব কথা বলেন সুলতানা কামাল।

আন্তর্জাতিক বর্ণবৈষম্য বিলোপ দিবস-২০১৯ উপলক্ষে ‘মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন’-এর সহযোগিতায় এ সমাবেশের আয়োজন করে ‘বাংলাদেশ দলিত পরিষদ’। সমাবেশে স্বাগত বক্তব্য দেন বাংলাদেশ দলিত পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অশোক দাস। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন পরিত্রাণের নির্বাহী পরিচালক মিলন দাস। এতে আরও উপস্থিত ছিলেন ন্যাশনাল চিলড্রেন টাস্কফোর্সের দলিত শিশু প্রতিনিধি মিনা দাস, হিন্দু বৌধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ কেশবপুর শাখার সভাপতি অধ্যাপক অসীত কুমার মদক, দলিত নেতা তপন দাস, বাংলাদেশ দলিত পরিষদের সভাপতি উদয় কৃষ্ণ দাস প্রমুখ।

এ ছাড়া সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় রাজনীতিবিদ, সংস্কৃতিকর্মী, সাংবাদিক, সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরাসহ দলিতজনরা। সমাবেশে সত্তরের দশকে কেশবপুরে দলিত জনগোষ্ঠীর মানবাধিকার ও বৈষম্যের বিরুদ্ধে প্রতিবাদকারী সুবোধ মিত্রকে মরণোত্তর সম্মাননা দেওয়া হয়।