advertisement
advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সালিশে বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যা

আমাদের সময় ডেস্ক
২৩ মার্চ ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২৩ মার্চ ২০১৯ ০৯:২০
advertisement

বাগেরহাট ও হবিগঞ্জে দুই গৃহবধূ এবং ঢাকার সাভারে এক ঠিকাদার খুন হয়েছেন। সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে জমির বিরোধে সালিশ বৈঠকে বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

সাভার : সাভার পৌর এলাকার তালবাগ মহল্লায় গতকাল সকালে রফিকুল বারি (৫১) নামের এক ঠিকাদার খুন হন। মায়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কের কারণে ছেলে মাসুম তাকে কুপিয়ে হত্যা করে বলে জানান সাভার মডেল থানার উপপরিদর্শক তাহমুদ। পুলিশ মাসুমকে না পেয়ে তার মা মোরশেদাকে (৩৮) আটক করে। রফিকুল টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার বারেকের ছেলে। তিনি সাভারের ডগড়মোড়া এলাকায় নিজ বাড়িতে বাস করতেন। বৃহস্পতিবার রাতে তিনি ওই নারীর সঙ্গে দেখা করতে যান। এ সময় মাসুম তাকে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

বাগেরহাট : বাগেরহাট শহরের পূর্ব সরুই এলাকায় (পুরাতন পুলিশ লাইনের পাশে) গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে হোসনেয়ারা বেগম এক গৃহবধূ খুন হন। তিনি গণপূর্ত বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত প্রকৌশলী মো. আব্দুর রহিমের স্ত্রী। গত ১৮ মার্চ ওমরা হজ পালন করতে সৌদি আরব যান আব্দুর রহিম। তার তিন ছেলে চাকরির সুবাদে বাড়িতে থাকেন না। নিহতের ছোট বোন ঝর্ণা বেগম জানান, বড় ভাগ্নের ফোন পেয়ে গিয়ে দেখি বোনের রক্তাক্ত মরদেহ খাটের ওপর পড়ে আছে। দুর্বৃত্তরা টাকা, স্বর্ণালঙ্কার ও মালামাল নিয়ে গেছে। হয়তো চিনে ফেলায় দুর্বৃত্তরা তাকে গলা কেটে হত্যা করে।

হবিগঞ্জ : চুনারুঘাট উপজেলার পূর্ব হাসেরগাও গ্রামে পারিবারিক ঝগড়ার জেরে বৃহস্পতিবার রাতে স্ত্রী শারমিন আক্তারকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন স্বামী জসিম মিয়া। পুলিশ ঘাতককে আটক করেছে। চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম আজমিরুজ্জামান এর সত্যতা নিশ্চিত করেন।

সিরাজগঞ্জ : বেলকুচি উপজেলার মুকন্দগাঁতী পশ্চিমপাড়া এলাকায় গতকাল দুপুরে জমি নিয়ে বিরোধ নিষ্পত্তির সালিশ বৈঠকে প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে জহুরুল ইসলাম নামে এক বৃদ্ধ নিহত হন। বেলকুচি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, জহুরুল ইসলামের সঙ্গে প্রতিবেশী বাছেদ প্রামাণিকের জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে বেশ কয়েকবার দেনদরবার হয়েছে। গতকাল সকালে আবারও বাড়ির পাশেই সালিশ বৈঠকের আয়োজন করা হয়। বৈঠক চলাকালে বাছেদ প্রামাণিকের ছেলে ইব্রাহিম ও খলিলসহ তাদের লোকজন জহুরুলকে পিটিয়ে হত্যা করে।

advertisement