advertisement
advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

এবার গোলানে চোখ ট্রাম্পের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
২৩ মার্চ ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২৩ মার্চ ২০১৯ ০০:৫৯
advertisement

অধিকৃত গোলান মালভূমিকে ইসরায়েলের সার্বভৌম এলাকা বলে স্বীকৃতি দিতে চান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কয়েক দশক ধরে নীতি ভেঙে তিনি এমন সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছেন।

খোদ যুক্তরাষ্ট্র থেকেই সমালোচনা হচ্ছে, এটা হবে জাতিসংঘের বাতলে দেওয়া নীতির পরিপন্থী। খবর বিবিসির। ১৯৬৭ সালের আরব-ইসরায়েল যুদ্ধে সিরিয়ার কাছ থেকে গোলান মালভূমির বেশিরভাগ অংশই দখলে নিয়েছিল তেল আবিব।

চার বছর পর সিরিয়া হাতছাড়া হওয়া অংশটি পুনর্দখলের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। ১৯৮১ সালে ইসরায়েল আনুষ্ঠানিকভাবে গোলানে বসতি বিস্তার করলেও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি মেলেনি। এক সপ্তাহ আগে ওয়াশিংটন জানিয়েছিল, যুক্তরাষ্ট্র এখন আর গোলান মালভূমিকে ইসরায়েলের ‘দখলকৃত ভূমি’ বলবে না, বরং বলবে ‘ইসরায়েল-নিয়ন্ত্রিত’ এলাকা।

অবশ্য হোয়াইট হাউসের দাবি, পরিভাষাগত এই পাথর্ক্য মার্কিন নীতিতে কোনো পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে না। কিন্তু মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাবেক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা রিচার্ড হাস বলেছেন, ‘যুদ্ধের মাধ্যমে দখল করা ভূখ-ের স্বীকৃতি প্রত্যাখ্যান করতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের যে প্রস্তাব আছে, ট্রাম্পের এ সিদ্ধান্ত তা লঙ্ঘন করবে।’ এর আগে জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তর করেন ট্রাম্প।

advertisement