advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

পয়লা বৈশাখে বাড়ি ফেরার পথে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ!

পাবনা ও বেড়া প্রতিনিধি
১৫ এপ্রিল ২০১৯ ২২:০৪ | আপডেট: ১৫ এপ্রিল ২০১৯ ২২:০৪

পাবনার বেড়া উপজেলার আমিনপুরে সিএনজিচালিত অটোরিকশার একজন চালক ও তার সহযোগীর বিরুদ্ধে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে আমিনপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন। ওই ছাত্রীর বাড়ি পাবনার সুজানগর উপজেলায়।

আজ সোমবার ওই ছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ওই ছাত্রীর মা জানান, গত বৃহস্পতিবার ওই ছাত্রী বেড়ার দীঘলকান্দি গ্রামে বোনের বাড়িতে বেড়াতে যায়। পয়ালা বৈশাখের দিন গতকাল রোববার বিকেলের দিকে সিএনজিচালিত অটোরিকশা যোগে বাড়ি ফিরছিল সে। কিছু পথ অতিক্রমের পর অন্য যাত্রীরা নেমে গেলে চালক আলামিন ও তার বন্ধু জহুরুল অটোরিকশাটি একটি নির্জন বাবলা বাগানের মধ্যে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে রাস্তার পাশে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে বাড়ি পৌঁছে দেয়।

স্কুলছাত্রীর মা বলেন, ‘গতকাল সন্ধ্যার আগে আমার মেয়েকে অসুস্থ অবস্থায় কয়েকজন লোক বাড়ি পৌঁছে দেয়। মেয়ের কাছ থেকে ঘটনার বিস্তারিত জেনে আমিনপুর থানায় আমি নিজে বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছি। তবে এখন পর্যন্ত কোনো আসামিকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। দিনে-দুপুরে যারা আমার মেয়েকে এভাবে নির্মম নির্যাতন করেছে, তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করছি।’

আমিনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মমিনুল ইসলাম বলেন, নির্যাতিত ছাত্রীর কাছ থেকে ঘটনার বিস্তারিত শুনেছি। তার পরিবার গতকাল রাতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছে। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের একাধিক টিম মাঠে নেমেছে। দ্রুত তাদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে।