advertisement
advertisement

একটি সইয়ের অপেক্ষা

আমাদের সময় ডেস্ক
১৬ এপ্রিল ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৬ এপ্রিল ২০১৯ ০৯:৫০

একটি সই কি মানুষের জীবনের চেয়েও বড় হতে পারে? না নিশ্চয়ই। অথচ হাসপাতালে এক নবজাতকের মা-বাবাকে স্বাক্ষর করে রক্ত নেওয়ার জন্য দাঁড়িয়ে থাকতে হয় আড়াই ঘণ্টার মতো। এদিকে সামান্য একটা সইয়ের জন্য অপেক্ষা করতে গিয়ে মৃত্যু হয় শিশুটির।

এমন মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে গত শনিবার ভারতের পশ্চিমবঙ্গের নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজে (এনআরএস)।

২০ দিনের ওই মুমূর্ষু শিশুটির নাম রাখা হয়েছিল মোহম্মদ সুভান। রক্তদাতা হাসপাতালে উপস্থিত থাকার পরও শিশুটির পরিবারকে এনআরএস মেডিক্যাল কলেজের ব্লাডব্যাংক কর্তৃপক্ষ আড়াই ঘণ্টা অপেক্ষায় রাখে সইয়ের জন্য।

এদিকে অপেক্ষারত অবস্থাতেই ছেলের মৃত্যুর খবর পান শিশুটির বাবা মোহম্মদ সফিকুল এবং মা নার্গিস বিবি। সফিকুল বলেন, আমার বাচ্চার অবস্থা খুব খারাপ ছিল। রক্ত পেলেও বাচ্চাটা হয়তো বাঁচত না। কিন্তু শেষ চেষ্টা তো করা যেত, তা-ও হলো না। এ ঘটনার পর শিশুটির নানা এনআরএসের সুপারের ঘরের বাইরে ড্রপবক্সে লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন।

তিনি জানান, এদিন সকাল ৫টা নাগাদ তিনি হাসপাতালের ‘সিক নিয়োনেটাল কেয়ার ইউনিট’ (এসএনসিইউ) থেকে রক্তের (বিরল বম্বে গ্রুপ) ‘রিকুইজিশন স্লিপ’ হাতে পান। সেই স্লিপে এনআরএসের ব্লাডব্যাংকের আধিকারীকের সই আবশ্যিক ছিল। কিন্তু তিনি যখন সই করা স্লিপ হাতে পান, ততক্ষণে শিশুটি মারা গেছে।

ঘটনার সময় ব্লাডব্যাংকের দায়িত্বে থাকা মেডিক্যাল অফিসার সুজিত ভট্টাচার্য বলেন, আমাকে কেউ বলেনি তারা ৭টায় এসেছেন। ৯টার পর ঘটনা জানা মাত্র স্লিপে লিখে দিই, আমাদের ব্লাডব্যাংকে রক্ত নেই। অন্য ব্লাডব্যাংকে খোঁজ করা হোক।