advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

নির্দোষ হলে পাশে থাকব আরমানের

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৮ এপ্রিল ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৮ এপ্রিল ২০১৯ ০৯:০৫

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক বলেছেন, পাটকল শ্রমিক জাহালমের মতো বেনারসি কারিগর আরমানও যদি নির্দোষ হয়ে সাজাভোগ করেন, তবে তা মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন। এ ক্ষেত্রে তার পাশে থাকবে কমিশন এবং তাকে কারামুক্ত করতে আইনি সহায়তা দেবে।

কমিশনের চেয়ারম্যান আমাদের সময়কে বলেন, আরমানযদি সত্যিই নিরপরাধ হয়, তা হলে নিঃসন্দেহে তার প্রতি অবিচার করা হয়েছে। এ ক্ষেত্রে তাকে যারা গ্রেপ্তার করেছে, যাদের কারণে তিনি তিন বছর ধরে কারাবন্দি, তাদের কেউই এর দায় এড়াতে পারেন না। সে ক্ষেত্রে এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট সবাই অপরাধী। তিনি যোগ করেন, আরমানের কারাবাস যদি কারও ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভুল’ হয়ে থাকে, তা হলে এর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

রিয়াজুল হক বলেন, আরমানের অভিযোগ সত্যি হলে এ ঘটনায় প্রকৃত সাজাপ্রাপ্ত আসামি ও পুলিশের যোগসাজশ আছে কিনা, খতিয়ে দেখতে হবে। বিনা অপরাধে দীর্ঘদিন বন্দি আরমান ও তার পরিবার সামাজিক, আর্থিক ও মানসিকভাবে নির্যাতিত-অপদস্থ হয়েছেন; দুঃখ-কষ্ট ভোগ করেছেন যা শুধু আরমানের জন্যই ভোগান্তির নয়, পুলিশের ভাবমূর্তিকেও প্রশ্নবিদ্ধ করে। তাই পুলিশকেই অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে দোষীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসার ক্ষেত্রে। আর আরমানের এহেন পরিস্থিতির জন্য দায়ীদের শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।