advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

অশ্লীল ভিডিও ছড়িয়ে রিমান্ডে ‘বাদশাহ ট্যাটু’

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৮ এপ্রিল ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৮ এপ্রিল ২০১৯ ০৯:১৪

ইন্টারনেটে অশ্লীল ভিডিও ছড়িয়ে শ্রীঘরের বাসিন্দা হয়েছেন ভাইরাল হওয়া ট্যাটুকারী তরিকুল ইসলাম বাদশাহ ওরফে বাদশাহ ট্যাটু। অর্ধনগ্ন নারীর শরীরে হাত দিয়ে ম্যাসাজ ও কুরুচিপূর্ণ কথা বলার ভিডিও বানিয়ে তা ভাইরাল করার অপরাধে বাদশাহ ট্যাটুকে রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ।

রাজধানীর রমনা থানায় পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে করা মামলায় গতকাল তাকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড চান তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক মো. সজীবুজ্জামান। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম জিয়াউর রহমান তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। বাদশাহ বাগেরহাট জেলার চিলমারী থানার কুনিয়া গ্রামের মো. জিন্নাত শেখের ছেলে।

advertisement

গত মঙ্গলবার রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে ডিএমপির সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগ। এ সময় তার প্রকাশিত অশ্লীল ভিডিওসহ মোবাইল ফোন, ফেসবুক আইডি ও পেজটি (ট্যাটু স্টুডিও নিউমার্কেট) জব্দ করা হয়। সেই ভিডিওতে তরিকুলের সঙ্গে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গিতে থাকা তরুণীকেও খুঁজছে পুলিশ। ডিএমপির সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগের অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) নাজমুল ইসলাম জানান, নারীর ‘অর্ধ উলঙ্গ’ শরীর নিয়ে একজন পুরুষ বিভিন্ন রকম তামাশা ও কুরুচিপূর্ণ কথা বলার ভিডিও বানিয়ে প্রকাশ করে গ্রেপ্তার বাদশাহ।

ভিডিওটি ভাইরাল হলে অনেকেই এর বিরুদ্ধে অনলাইনে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গড়ে তোলার জন্য মন্তব্য করেন। এ ধরনের অশ্লীল অঙ্গভঙ্গিযুক্ত ভিডিও নিঃসন্দেহে নিরাপদ ইন্টারনেটের জন্য হুমকি। তাই বাদশাহর বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে রমনা থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। ভিডিওতে থাকা তরুণীও অন্যতম আসামি। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।