advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে রাজনীতি করছে সরকার : ডা. ইরান

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৮ এপ্রিল ২০১৯ ২২:০০ | আপডেট: ১৮ এপ্রিল ২০১৯ ২২:০০
advertisement

রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে সরকার অপরাজনীতি করছেন মন্তব্য করে বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে লেবার পার্টির কার্যালয়ে ঢাকা দক্ষিণ লেবার পার্টি জরুরি সভায় একথা বলেন ইরান।

ডা. ইরান বলেন, ‘সরকার বেগম জিয়া ও তারেক রহমানের জনপ্রিয়তাকে ভয় পায়। তাই জিয়া পরিবারকে ধ্বংস করতেই মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলায় বেগম খালেদা জিয়াকে কারান্তরীণ করছে। বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত বেগম জিয়াকে মানসম্মত চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত করে ক্রমশ মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে। বেগম জিয়া তিনবারের সফল প্রধানমন্ত্রী, জনপ্রিয় রাজনৈতিক দল বিএনপি ও ২০ দলীয় জোটের নেত্রী, স্বাধীনতার মহান ঘোষক, সাবেক রাষ্ট্রপতি, মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার ও জেড ফোর্স কমান্ডার এবং সাবেক সেনাপ্রধানের স্ত্রী তিনি। বেগম জিয়ার সুচিকিৎসা থেকে বঞ্চিত, তাই শারীরিক সুস্থতা নিশ্চিত করতে উন্নত চিকিৎসার জন্য মুক্তি করা জরুরি।’

খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য সরকারকে বাধ্য করতে হবে উল্লেখ করে ডা. ইরান বলেন, ‘সরকারই জনগণকে বিভ্রান্ত করতে বেগম জিয়াকে প্যারোলে মুক্তির কথা বলছে। আপোষহীন বেগম জিয়া প্যারল মুক্তিকে প্রত্যাখান করায় আবার প্রমাণ করলেন দেশনেত্রী নিজের জীবনের চেয়ে দেশ ও জনগণের স্বার্থে আপোষহীন। তিনি জনগণের জন্য রাজনীতি করছেন। বেগম জিয়ার মুক্তি মানেই গণতন্ত্র ও মানবাধিকারের মুক্তি।’

তাই নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন জোরদার করে বেগম জিয়াকে মুক্ত করতে ২০ দলীয় জোটকে সক্রিয় করার আহ্বান জানান লেবার পার্টির এ নেতা।

ঢাকা দক্ষিণ লেবার পার্টির আহ্বায়ক আনোয়ার হোসাইনের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন লেবার পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান মো. ফারুক রহমান, মো. মোসলেম উদ্দিন, এস এম ইউসুফ আলী, নগর দক্ষিণ সদস্য সচিব সালাউদ্দিন সরদার, সংগঠন সচিব আবু সাঈদ, ডেমরা থানা সভাপতি ইমরান হোসেন মুন্সি, মতিঝিল থানা সভাপতি আবুল কালাম, পল্টন থানা আহবায়ক হাবিবুর রহমান, রমনা থানা আহবায়ক সোলায়মান ফকির ও ছাত্রমিশন কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক শরিফুল ইসলাম প্রমুখ।