advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

রাজীবের মৃত্যুর মামলায় প্রতিবেদন ২২ মে

১৯ এপ্রিল ২০১৯ ০১:৩৩
আপডেট: ১৯ এপ্রিল ২০১৯ ১০:১৯

দুই বাসের রেষারেষিতে তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীব হোসেনের এক হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে মৃত্যুর মামলায় প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ পিছিয়ে আগামী ২২ মে ধার্য করেছেন আদালত। গতকাল বৃহস্পতিবার পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল না করায় ঢাকা মহানগর হাকিম সারাফুজ্জামান আনছারী এ নতুন তারিখ ঠিক করেন।

এ মামলার আসামি বিআরটিসি বাসের চালক মো. ওয়াহিদ ও স্বজন পরিবহনের বাসের চালক মো. খোরশেদ বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন। আসামিদের গত ৫ এপ্রিল দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এর পর রিমান্ড শেষে ৮ এপ্রিল তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।

পরে তাদের পক্ষে ৩ দফা জামিনের আবেদন করা হলেও তা নামঞ্জুর হয়।

২০১৮ সালের ৩ এপ্রিল রাজধানীর কারওয়ানবাজারে বিআরটিসি ও স্বজন পরিবহনের দুটি বাসের রেষারেষির সময় বিআরটিসি বাসের যাত্রী তিতুমীর কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রাজীবে একটি হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পরে ওই বছরের ১৬ এপ্রিল রাতে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রাজীব। ৩ এপ্রিলের ওই ঘটনায় প্রথমে দণ্ডবিধির ২৭৯ ও ৩৩৮(ক) ধারায় মামলা করা হয়। কিন্তু রাজিব মারা গেলে ধারা পরিবর্তন করে মামলাটি দণ্ডবিধির ৩০৪(ক) অন্তর্ভুক্ত করা হয়।