advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মূলহোতা পারভেজ ঢাকার কামরাঙ্গীরচরে গ্রেপ্তার

শিবচর প্রতিনিধি
২০ এপ্রিল ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২০ এপ্রিল ২০১৯ ০৯:৩০

মাদারীপুরের শিবচরে ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার এক স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনার মূলহোতা পারভেজকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মোবাইল ফোন ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে ঢাকার কামরাঙ্গীরচর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুুলিশসূত্র জানায়, ভাঙ্গা উপজেলার আজিমনগর ইউনিয়নের ব্রাহ্মণপাড়া গ্রামের দশম শ্রেণির ওই ছাত্রীর সঙ্গে একই এলাকার পারভেজ মুন্সির (২১) প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। গত ৫ মার্চ পারভেজ তাকে শিবচরের দত্তপাড়া ইউনিয়নের একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে সে ও তার দুই সহযোগী ওই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করে ফেলে রেখে যায়। স্থানীয়রা মেয়েটিকে উদ্ধার করে।

advertisement

এ ব্যাপারে ভিকটিমের পরিবারের পক্ষ থেকে মাদারীপুর আদালতের মাধ্যমে শিবচর থানায় গণধর্ষণ ও ধর্ষণের ছবি প্রকাশের অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়। এর পর গা-ঢাকা দেয় পারভেজ ও তার সহযোগীরা। পুলিশ দীর্ঘদিন মোবাইল ফোন ট্র্যাকিংসহ প্রযুক্তি ব্যবহার করে পারভেজের অবস্থান নিশ্চিত হয়।

গত বৃহস্পতিবার দুপুরে দত্তপাড়া পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের আইসি মো. শওকত হোসেন ও এসআই মাজেদ মণ্ডলের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ঢাকার কামরাঙ্গীরচর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে রাতে শিবচর থানায় নিয়ে আসে। গতকাল শুক্রবার তাকে মাদারীপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে পাঠানো হয়। সেখানে ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার সুব্রত কুমার হালদার জানান, ধর্ষণের মামলাগুলো খুব গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে। পারভেজ গ্রেপ্তার হয়েছে, তার সহযোগীদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।