advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দেশের ৮৫ শতাংশ নারী নোংরা কাপড়ে কাজ করে

২০ এপ্রিল ২০১৯ ০০:০০
আপডেট: ২০ এপ্রিল ২০১৯ ০০:০০
ওয়াশ অ্যালায়েন্স ইন্টারন্যানশাল সিমাভির কান্ট্রি কো-অর্ডিনেটর অলক মজুমদার বলেন, এসডিজি ৬ বাস্তবায়নের জন্য মোট প্রয়োজনের ৪ হাজার ৮০০ কোটি টাকা বরাদ্দ ঘাটতি থাকছে। এসডিজি বাস্তবায়নে এ ধরনের বরাদ্দ ঘাটতি কাম্য নয়। আন্তর্জাতিক হিসাবে কোনো পাবলিক প্রতিষ্ঠানে প্রতি ২৫ জনে একটি টয়লেট থাকছে; কিন্তু আমাদের দেশে এর বাস্তবায়ন হয় না বললেই চলে। এ ছাড়া ৮৫ শতাংশ নারী নোংরা কাপড়ে কাজ করে। ফলে তারা বিভিন্ন রোগব্যাধিতে ভোগে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একটি মেয়ে প্রতিমাসে ৩ দিন অনুপস্থিত থাকে স্বাস্থ্যসম্মত মাসিক সম্পর্কে ধারণা না থাকায়। মাত্র ১ শতাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ নিয়ে সচেতনতা রয়েছে। তিনি আরও বলেন, ২০২০ সালে নিরাপদ পানি সরবরাহের বাস্তবায়নের কথা বলা হয়েছে। কিন্তু বর্তমানে এই হার মাত্র ৫৬ শতাংশ। প্রতিবছর বাড়ছে ১ শতাংশ করে। এ হারে চলতে থাকলে ২০৩০ সাল নাগাদ এটি বাস্তবায়ন অসম্ভব। এসডিজি বাস্তবায়নে এককালীন লক্ষ্যমাত্রা না নিয়ে ২০২৫ ও ২০৩০ এই দু-ভাগে ভাগ করে বরাদ্দ ও বাস্তবায়নের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা উচিত। এ ছাড়া এসব খাতে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্য আমাদের একমাত্র সম্বল; তাই অতিদ্রুত এ সংক্রান্ত তথ্য বিবিএসের প্রকাশ করা উচিত।