advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

পথচারীর মোবাইল-হেডফোন কেড়ে নিলেন ডিসি ট্রাফিক

অনলাইন ডেস্ক
২১ এপ্রিল ২০১৯ ১৫:৫৪ | আপডেট: ২২ এপ্রিল ২০১৯ ০৯:২২

পথচারীদের মোবাইল-হেডফোন কেড়ে নেওয়ার ঘটনা ঘটেছে চট্টগ্রামে। আর এই কাজটি করেছেন খোদ ট্রাফিক বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) হারুন-অর-রশিদ হাযারী। গতকাল শনিবার নগরীর জিইসি মোড়ে ‘ট্রাফিক পক্ষ-২০১৯’ পালনকালে এ কাজ করেন তিনি।

তবে অযথা পথচারীদের কাছ থেকে মোবাইল-হেডফোন কেড়ে নেননি ট্রাফিক বিভাগের এই উপ-পুলিশ কমিশনার। কানে হেডফোন লাগিয়ে ও মোবাইলে কথা বলতে বলতে যারা রাস্তা পার হচ্ছিলেন তাদের কাছ থেকেই হেডফোন ও মোবাইল কেড়ে নেন হারুন-অর-রশিদ হাযারী।

যাদের কাছ থেকে তিনি মোবাইল কেড়েছেন তাদের শেষ বারের মতো সতর্ক করে দিয়েছেন এই ট্রাফিক পুলিশ কর্মকর্তা। আর যাদের হেডফোন কেড়েছেন সেগুলো গাড়ির চাকার নিচে দিয়ে নষ্ট করে ফেলেন।

এছাড়া ডকুমেন্টবিহীন গাড়ি ও লাইসেন্সবিহীন চালকের বিরুদ্ধে মামলা করেন তিনি। মোটরসাইকেল আরোহীদের হেলমেট পড়তে বাধ্য করার পাশাপাশি শিশু, বৃদ্ধ, শিক্ষার্থী ও পথচারীদেরকে রাস্তা পারাপারে সহায়তা করেন এই কর্মকর্তা।

এ ব্যাপারে তার সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, ‘পথচারীদের সুবিধার কারণেই এই পদক্ষেপ নেওয়া। এই মোবাইল-হেডফোনের কারণেই পথচারীদের অনেকেই দুর্ঘটনার মুখোমুখি হন। তারা যাতে সতর্ক হন তাই এগুলো করা হয়েছে।’

তিনি জানান, সড়কের দুর্ঘটনা রোধ, ট্রাফিক ব্যবস্থাপনায় শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা, বেপরোয়া গাড়ি চলাচল থেকে ড্রাইভারদের বিরত রাখা, রোড সাইন চিনে গাড়ি চালানো, ছাত্র-ছাত্রী ও পথচারীসহ সকলের নিরাপদ যাত্রা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ট্রাফিক পক্ষ-২০১৯ শুরু হয়েছে। সারাদেশের মতো চট্টগ্রামেও কাজ শুরু করে চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) ট্রাফিক বিভাগ। আগামী ৩০ এপ্রিল ট্রফিক পক্ষ শেষ হবে। পরিবহন চালক-হেলপারসহ সর্বস্তরের জনগণ সচেতন হলে দুর্ঘটনা অনেকাংশেই রোধ হবে ও সড়কে শৃঙ্খলা ফিরে আসবে। এজন্য সকলের আন্তরিক সহযোগিতা প্রয়োজন।