advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বখাটের উত্ত্যক্তে ফাঁস নিয়ে ছাত্রীর আত্মহত্যা

সরিষাবাড়ী প্রতিনিধি
২৪ এপ্রিল ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২৪ এপ্রিল ২০১৯ ০৯:৩৬
advertisement

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে বখাটের উত্ত্যক্তের শিকার ছোঁয়া সাহা অন্তরা (১৪) নামে এক সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। গত সোমবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের সাঞ্চেরপাড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অন্তরা ওই গ্রামের নারায়ণ চন্দ্র সাহার মেয়ে ও সরিষাবাড়ী আরামনগর মামুন স্মৃতি ক্যাডেট একাডেমির ছাত্রী। নিহতের পরিবার ও স্থানীয়রা জানান, সরিষাবাড়ী পৌরসভার মূলবাড়ী গ্রামের মতিউর রহমান তালুকদারের ছেলে তৌহিদুর রহমান ওরফে তানিন তালুকদার দীর্ঘদিন ধরে অন্তরাকে উত্ত্যক্ত করছিল।

তানিন সরিষাবাড়ী টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট ইনস্টিটিউটের ব্যাংকিং বিষয়ে ১ম বর্ষের ছাত্র। অন্তরা স্কুলে যাওয়ার পথে প্রায়ই সে তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিত। কিন্তু কিশোরীটি তাতে সাড়া না দেওয়ায় সম্প্রতি তানিন তার বন্ধুদের নিয়ে অন্তরার বাড়িতে ও তার বাবার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে গুলি করে হত্যার হুমকি দিয়ে আসে। অন্তরার বাবা বিষয়টি তানিনের পরিবার ও স্থানীয় গণ্যমান্যদের জানান। এতে ক্ষুব্ধ তানিন গত ২০ এপ্রিল স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে অন্তরাকে জোর করে মুখচেপে ধরে মোবাইল ফোনে সেলফি তুলে ফেসবুকে পোস্ট করে।

ফেসবুকে সেই ছবি আসার খবর পেয়ে অন্তরা গত সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে স্কুল থেকে বাড়ি ফিরে ফ্যানের সঙ্গে মায়ের শাড়ি পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দেয়। পরিবারের লোকজন উদ্ধার করে সরিষাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে ওই রাতেই সরিষাবাড়ী থানার ওসি মাজেদুর রহমান ও এসআই আশরাফুল আলম সরিষাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে সুরতহাল শেষে লাশ থানায় নিয়ে আসেন।

ওসি মাজেদুর রহমান জানান, এ ঘটনায় বখাটে তানিনসহ ৭ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ২-৩ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন অন্তরার বাবা। তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ইতোমধ্যে রিয়াদুজ্জামান নামে তানিনের এক সহপাঠীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

advertisement