advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি

আমাদের সময় ডেস্ক
২৬ এপ্রিল ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২৫ এপ্রিল ২০১৯ ২৩:২৭
জন্ম থেকেই শিশুটির দুই হাত নেই। তবু কোনো কৃত্রিম হাত ছাড়াই লিখতে পারে সে। সম্প্রতি এক ‘সুন্দর হাতের লেখা’ প্রতিযোগিতায় লাখ লাখ শিক্ষার্থীকে পেছনে ফেলে প্রথম স্থান অর্জন করেছে সে। অবিশ্বাস্য মনে হলেও এমন ঘটনাই ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল্যান্ডে। ১০ বছর বয়সী ওই শিশুটির নাম সারা হেনেসলি। মেরিল্যান্ডের ফ্রেডরিকে সেন্ট জোনস রিজিওনাল ক্যাথলিক স্কুলের তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ে সে। এ বছর জাতীয় পর্যায়ে ‘সুন্দর হাতের লেখা’ প্রতিযোগিতায় নিকোলাস ম্যাক্সিম পুরস্কার পেয়েছে এ শিশু। ১৩ জুন সারার হাতে তুলে দেওয়া হবে নিকোলাস ম্যাক্সিম জাতীয় পুরস্কার। একটি ট্রফি ও সঙ্গে ৫০০ ডলার দেওয়া হবে তাকে। হাত না থাকলেও মূলত দুই বাহুতে পেনসিল চেপে লেখে সারা। লেখা তার কাছে শিল্পকর্ম সৃষ্টির মতো মনে হয়। সারার শিক্ষক শেরিল চারিলা বলেন, আমি এই ছোট্ট মেয়েকে কখনো কোনো কাজে ‘পারব না’ বলতে শুনিনি। সে খুদে রকস্টারের মতো। তাকে যা দেবেন, তাই শিখে নিতে পারে সে। সারা ছবি আঁকতে পারে, মাটি দিয়ে ভাস্কর্যও বানাতে পারে। জানা যায়, সারার জন্ম চীনে। ২০১৫ সালের জুনে যুক্তরাষ্ট্রে আসে সে। সারার মা ক্যাথরিন হেনেসলি জানান, সারা সব কাজ একা একাই করে। কাঁচি দিয়ে কাগজ কাটার সময় কেউ হয়তো তাকে সাহায্য করতে চাইল, সেটা কখনই নেবে না সে। লেখার মতো সব কাজই অদম্য উৎসাহ নিয়ে শিখেছে। অবসরে তার প্রিয় কাজ সাঁতার কাটা কিংবা বোন ভেরোনিকার সঙ্গে খেলা করা।