advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মোবাইল টাওয়ারে রেডিয়েশন সমীক্ষা চালাতে হাইকোর্টের নির্দেশ

২৬ এপ্রিল ২০১৯ ০০:৫৮
আপডেট: ২৬ এপ্রিল ২০১৯ ০০:৫৮

মোবাইল ফোনের টাওয়ার থেকে নিঃসৃত রেডিয়েশনের মাত্রা এবং তা স্বাস্থ্যের জন্য কতটুকু ক্ষতিকর সে বিষয়ে সমীক্ষা চালাতে বিটিআরসিকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আগামী চার মাসের মধ্যে এ সংক্রান্ত সমীক্ষা সম্পন্ন করে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে। যদি নিঃসৃত বিকিরণ জনস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর হয়, তা হলে শিক্ষা

প্রতিষ্ঠান, আদালত, কারাগার, খেলার মাঠ, জনসমাগম স্থলে বসানো টাওয়ার সরিয়ে ফেলার বিষয়ে আদেশ দেবেন আদালত। বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ গতকাল বৃহস্পতিবার ১১ দফা নির্দেশনাসহ এই রায় দেন।
রায়ে আমদানিকৃত মোবাইল সেটে বিকিরণের মাত্রা কেমন তা সংশ্লিষ্ট সেটে উল্লেখ, মোবাইল টাওয়ারের বিকিরণ নির্ধারিত মাত্রার চেয়ে এক দশমাংশ করা, বিকিরণ বেশি হলে পুরনো টাওয়ার অপসারণ করে নতুন টাওয়ার স্থাপন, অধিক মাত্রায় বিকিরণ যাতে না হয় সেজন্য অতিরিক্ত নিরাপত্তামূলক পদক্ষেপ, টাওয়ার বসাতে জমি অধিগ্রহণে বাধা থাকলে বিকল্প পদ্ধতি গ্রহণ, স্বাস্থ্যঝুঁকি নিয়ন্ত্রণে বিটিআরসির মনিটরিং সেল গঠনসহ ১১ দফা নির্দেশনা দিয়েছেন হাইকোর্ট। আদালত বলেছেন, মোবাইল টাওয়ার থেকে নিঃসৃত বিকিরণ নিয়ন্ত্রণে চূড়ান্ত গাইডলাইন প্রণয়নের আগে এ সংক্রান্ত সমীক্ষা করা দরকার। এর সঙ্গে জনগণের স্বাস্থ্যঝুঁকির বিষয়টি সম্পৃক্ত।
রায়ের পর রিটকারী আইনজীবী মনজিল মোরসেদ সাংবাদিকদের বলেন, সমীক্ষা করে দেশের টাওয়ারগুলোর ক্ষতিকর রেডিয়েশনের বিষয়ে আদালতকে জানাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ওই সমীক্ষা প্রতিবেদন দেখে হাইকোর্ট ক্ষতিকর রেডিয়েশন ছড়ানো মোবাইল টাওয়ার অপসারণের বিষয়ে আদেশ দেবেন।
মোবাইল টাওয়ার থেকে নিঃসৃত রেডিয়েশন মানব স্বাস্থ্যের জন্য কতটুকু ক্ষতিকর সে বিষয়ে নির্দেশনা চেয়ে ২০১২ সালে হাইকোর্টে রিট করে হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ।