advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

২০ লাখের বেশি সিম বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু

২৬ এপ্রিল ২০১৯ ০০:৫৯
আপডেট: ২৬ এপ্রিল ২০১৯ ০০:৫৯

একটি জাতীয় পরিচয়পত্রের বিপরীতে নির্ধারিত সংখ্যার বেশি নিবন্ধিত অন্তত ২০ লাখ ৪৯ হাজার ৯৪৭টি সিম গতকাল বৃহস্পতিবার মাঝরাত থেকে বন্ধ করে দিতে সব মোবাইল অপারেটরকে নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। গতকাল রাতে বিটিআরসির সিনিয়র সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
বিটিআরসির নির্দেশনা ছিলÑ একই

জাতীয় পরিচয়পত্রে ১৫টির বেশি নিবন্ধিত সিম রাখা যাবে না। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটি দেখেছে, একটি জাতীয় পরিচয়পত্রের বিপরীতে কোথাও কোথাও নিবন্ধিত সিমের সংখ্যা ২০টি ছাড়িয়ে গেছে। এ জন্য অতিরিক্ত সিম কমিয়ে ফেলতে বিটিআরসি তৈরি করেছে ‘সেন্ট্রাল বায়োমেট্রিক ভেরিফিকেশন মনিটরিং প্ল্যাটফর্ম’।
এ ব্যাপারে বিটিআরসি চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক গণমাধ্যমকে বলেন, নিরাপদে মোবাইল সিম ব্যবহারে এ প্রচেষ্টা আরও গ্রাহকবান্ধব এবং এই খাত অধিকতর সুশৃঙ্খল হবে। আশা করছি এর ফলে জনসাধারণ নির্বিঘেœ উন্নত টেলিযোগাযোগ সেবা গ্রহণ করতে পারবেন।
বিটিআরসি সূত্র জানায়, গত রাত থেকে সিমগুলো বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। তবে সব সিম বন্ধ হতে ৭-৮ ঘণ্টা সময় লেগে যেতে পারে। একটি জাতীয় পরিচয়পত্রের বিপরীতে কতটি সিম নিবন্ধন করা হয়েছে তা *১৬০০১# ডায়াল করে বা জাতীয় পরিচয়পত্রের শেষ চারটি ডিজিট লিখে ১৬০০১ নম্বরে মোবাইল থেকে এসএমএস পাঠিয়ে জানা যাবে।