advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

আমিরাতে বাণিজ্যিক জাহাজে হামলার ঘটনায় ইরানকে দুষছে যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১৪ মে ২০১৯ ১১:১০ | আপডেট: ১৪ মে ২০১৯ ১৭:৪৩
advertisement

সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুজায়রা সমুদ্রবন্দরে বাণিজ্যিক জাহাজে হামলা চালানোর ঘটনায় ইরাকে দুষছে যুক্তরাষ্ট্র। গতকাল সোমবার একজন মার্কিন কর্মকর্তা বলেছেন, আমেরিকার একটি সামরিক দলের প্রাথমিক ধারণা অনুযায়ী, ইরানের ইন্ধনেই ওই হামলা চালানো হয়েছে।

গতকাল রোববার সকালে নোঙর করা চারটি বাণিজ্যিক জাহাজকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করে এ বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এতে সাতটি তেলবাহী ট্যাঙ্কার পুড়ে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

আমিরাতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, আমিরাতের জলসীমার কাছে এই ‘অন্তর্ঘাতমূলক হামলা’ চালানো হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ফুজাইরা বন্দরের কাছে এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। তবে এতে কোনো প্রাণহানির ঘটনা ঘটেনি।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, বাণিজ্যিক জাহাজগুলোকে নাশকতামূলক তৎপরতার লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করা হয়েছে। এসব জাহাজের কর্মীদের জীবন বিপন্ন করা হয়েছে।

একজন মার্কিন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে মার্কিন বার্তা সংস্থা এপিকে বলেন, বিস্ফোরণের কবলেপড়া ৪টি জাহাজেই ৫ থেকে ১০ ফুট ফুটো দেখা গেছে। তাদের ধারণা, বিস্ফোরণের কারণেই জাহাজগুলো ফুটো হয়েছে। আমিরাতের অনুরোধে মার্কিন সামরিক বিশেষজ্ঞদের একটি দল ঘটনা তদন্তে সেখানে গেছেন।

তবে, ঠিক কী কারণে এ ঘটনায় ইরানের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে, সে সম্পর্কেও কিছু বলতে পারেননি ওই কর্মকর্তা। তবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিক্রিয়ার আগেই ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়, এ ঘটনাকে তেহরানের ওপর সামরিক হামলার অজুহাত হিসেবে ব্যবহার করতে পারে আমিরাতের মিত্র যুক্তরাষ্ট্র।

 

advertisement