advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

পাটকলগুলো দশ বছরে পেয়েছে ৭ হাজার কোটি টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৬ মে ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৬ মে ২০১৯ ০৯:২৯
advertisement

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলগুলোকে আর কত দিন অর্থায়ন করব। গত ১০ বছরে আমরা তাদের ৭ হাজার কোটি টাকা দিয়েছি। এটা অনেক বড় টাকা। ফ্যাক্টরি চলে না বন্ধ, বেতন দিতে পারছে না, আমি জানি না এটা কীভাবে সমাধান হবে। প্রধানমন্ত্রীই এটার সমাধান করতে পারেন। আমি যেহেতু সরাসরি এ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে নেই। তাই এ বিষয়ে আমার কথা বলা ঠিক হবে না। কারণ ওই মন্ত্রণালয়ে দুজন মন্ত্রী রয়েছেন। তারা হয়তো শ্রমিকদের কোনো কমিটমেন্ট দিয়েছেন। কিন্তু আমি এ বিষয়ে কোনো কমিটমেন্ট দিতে পারব না।

গতকাল বুধবার সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ের সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী এসব কথা বলেন। অনেক দিনের বেতন বেকেয়ার জন্য রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলগুলোর শ্রমিকরা যে আন্দোলন করছেন সে বিষয়ে সরকার কী করছে জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী এখন দেশেই রয়েছেন। আমি তাদের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলেছি। আমার বিশ্বাস, প্রধানমন্ত্রী এটার কোনো না কোনো সমাধান বের করতে পারবেন। তাদের প্রধানমন্ত্রীর কাছে যেতে হবে।’

অন্য এক প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী বলেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে নতুন নির্মিত দ্বিতীয় মেঘনা, গোমতী ও কাঁচপুর সেতু অচিরেই খুলে দেওয়া হবে। ফলে ওইসব এলাকায় ঈদের সময় যানজট কমবে। আগামী ঈদের আগেই এ তিনটি ব্রিজ আমরা উদ্বোধন করতে পারব। এসব ব্রিজ দিয়ে স্বাভাবিকভাবে যান চলাচল করতে পারবে। প্রধানমন্ত্রী নিজেই আশা পোষণ করেছেন যে, তিনি এগুলো উদ্বোধন করবেন।

আসন্ন বাজেটে বিড়ি-সিগারেটের দাম বাড়ানো হবে কিনা প্রশ্নের উত্তরে মুস্তফা কামাল বলেন, বাজেট নিয়ে আজকে আলোচনা নেই। কোন জিনিসের দাম বাড়বে কোনটার কমবে সেটা এ মুহূর্তে বলা ঠিক হবে না। যেসব আইটেম অর্থের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকে সেগুলোর আমরা বাজেট সংসদে দেওয়ার আগে বলতে পারি না। এটা আইনে কাভার করে না।