advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সেফাত উল্লাহর বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলার প্রতিবেদন দাখিলের সময় পেছাল

অনলাইন ডেস্ক
১৫ মে ২০১৯ ২৩:২২ | আপডেট: ১৫ মে ২০১৯ ২৩:২২
advertisement

ফেসবুক লাইভে পবিত্র কোরআন অবমাননা করার অভিযোগে সেফাত উল্লাহর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের সময় বাড়িয়ে আগামী ১৮ জুলাই দিন ধার্য করা হয়েছে।

আজ বুধবার পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল না করায় ঢাকার ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আস সামস জগলুল হোসেন নতুন তারিখ ধার্য করেন।

গত ২৩ এপ্রিল ঢাকা আইনজীবী সমিতির সদস্য অ্যাডভোকেট মো. আলীম আল রাজী (জীবন) বাদী হয়ে এই মামলা দায়ের করেন। ওইদিন ট্রাইব্যুনাল পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটকে ১৫ মের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

মামলায় বলা হয়েছে, গত ১৭ এপ্রিল বাদী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেখতে পান যে, অস্ট্রিয়ার ভিয়েনা প্রবাসী সেফাত উল্লাহ তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লাইভে এসে পবিত্র আল কোরআন সম্পর্কে বিভিন্ন ধরণের কটুক্তি করছেন। আল কোরআনকে অবমাননা করছেন, যা ইসলামী বিশ্বকে মারাত্মকভাবে আহত করেছে।

সেফুদার এই ফেসবুক প্রচারণা ব্যাপকভাবে ভাইরাল হয়। মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনেছে উল্লেখ করে বাদী মামলায় বলেছেন সেফুদার অপরাধটি এই ট্রাইব্যুনালে বিচার্য এবং এটি একটি শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

মামলার আরজিতে আরো বলা হয়, আসামি সেফুদা একইভাবে বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে বিভিন্ন সময় লাইভে এসে কুরুচিপূর্ণ, অশ্লীল, আক্রমনাত্মক বক্তব্য দিয়েছেন। তিনি শেখ হাসিনাকে গালাগালি করাসহ বঙ্গবন্ধুকে নিয়েও ফেসবুকে কটুক্তি করেছেন।

উল্লেখ্য, ফেসবুক লাইভে এসে এ ধরণের কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দেওয়ার কারণে ইসলামিক রিলিজিয়াস অথরিটি অস্ট্রিয়ার সুপ্রিম কাউন্সল সদস্য ও এশিয়ান কালচারাল কমিউনিটির প্রেসিডেন্ট ইঞ্জিনিয়ার এম এ হাশেম অস্ট্রিয়ার স্থানীয় স্টেট প্রসিকিউটর বরাবর মামলা করেন। অস্ট্রিয়ায় মুসলমানদের মধ্যে সেফুদার বিভিন্ন বক্তব্য ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গেছে।

advertisement