advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

পশ্চিমবঙ্গে আজই শেষ হবে ৭ম পর্বের প্রচার

১৬ মে ২০১৯ ০১:২৩
আপডেট: ১৬ মে ২০১৯ ০৯:০৯
advertisement

বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের রোড শোকে কেন্দ্র করে কলকাতায় অরাজকতা ও ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার জেরে লোকসভা নির্বাচনের শেষ দফার ভোটের আগে নজিরবিহীন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে ভারতের নির্বাচন কমিশন। রাজ্যের প্রতিটি দলকে আজ বৃহস্পতিবারের মধ্যেই ভোট প্রচার বন্ধ করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ নির্ধারিত সময়ের একদিন আগেই শেষ দফার ভোটের প্রচার বন্ধ করতে হচ্ছে সব দলকে।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, রাজ্যে লোকসভা নির্বাচনের শেষ দফার ভোটের প্রচার সমাপ্ত হওয়ার কথা ছিল কাল শুক্রবার বিকালে। কিন্তু গত মঙ্গলবারের অমিত শাহের রোড শো চলাকালীন আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রচার ও শোভাযাত্রাকে কেন্দ্র করে যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটছে তার জন্যই প্রচার শেষ করার এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

এই সিদ্ধান্তের পাশাপাশি রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব অত্রি ভট্টাচার্যকেও দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দিয়েছে কমিশন। তার কাজকর্ম দেখভাল করবেন রাজ্যের মুখ্য সচিব মলয় দে। অন্যদিকে বর্তমানে এডিজি সিআইডি পদে থাকা কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকেও অপসারিত করা হয়েছে। একই সঙ্গে কমিশনের নির্দেশ কাল শুক্রবার সকাল ১০টার মধ্যে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে রিপোর্ট করতে হবে রাজীব কুমারকে।

ভারতের ইতিহাসে এই প্রথম কোনো রাজ্যে দেশটির সংবিধানের ৩২৪ ধারা প্রয়োগ করল নির্বাচন কমিশন। এদিন উপনির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈন সংবাদ সম্মেলন করে বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে দিল্লির নির্বাচন সদনে গিয়ে পশ্চিমবঙ্গে শেষ দফার নির্বাচন নিয়ে অভিযোগ জানানো হয়। কমিশনও ওই রাজ্যে কী ঘটছে, সে বিষয়ে নজর রেখেছিল। এই দুটি বিষয় পর্যালোচনা করার পর কমিশনের তরফ থেকে এই পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।

আগামী ১৯ মে লোকসভার সপ্তম তথা শেষ দফার নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের দমদম, বারাসাত, বসিরহাট, জয়নগর, মথুরাপুর, ডায়মন্ড হারবার, যাদবপুর, উত্তর ও দক্ষিণ কলকাতা কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হবে। এ ছাড়া বিহারে ৮, ঝাড়খন্ডে ৩, চন্ডিগড়ে ১, হিমাচল প্রদেশে ৪, মধ্যপ্রদেশে ৮, পাঞ্জাবে ১৩ ও উত্তরপ্রদেশের ১৩টি লোকসভা আসনে ভোটগ্রহণ করা হবে। এরপর ২৩ মে ঘোষণা করা হবে চূড়ান্ত ফল।

advertisement