advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ধ্যানে বসে কী চাইলেন মোদি?

১৯ মে ২০১৯ ১৩:৪১
আপডেট: ১৯ মে ২০১৯ ১৩:৪১

ভারতে লোকসভার সপ্তম ও শেষ ধাপের নির্বাচনের ঠিক একদিন আগে কেদারনাথ গুহায় ধ্যানে বসেছিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আজ রোববার সকাল পর্যন্ত তিনি ধ্যানে মগ্ন ছিলেন। নির্বাচনের শেষ দিনের ঠিক আগে মোদির এমন ধ্যানে চলে যাওয়া নিয়ে সমালোচনা শুরু হয়েছে চারদিকে। দুই দিনব্যাপী ধ্যানে তিনি সৃষ্টিকর্তার কাছে কী চাইলেন তাই যেন এখন কৌতূহলের বিষয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আজ রোববার ধ্যান শেষে কেদারনাথ মন্দিরে গিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন, দুদিন আমাকে নিজের মতো কাটানোর সুযোগ দিয়েছে বলে নির্বাচন কমিশনকে ধন্যবাদ জানাই। কেদারনাথ আসতে পেরে আমার ভালো লাগছে। আধ্যাত্মিক উন্নতির জন্য এই জায়গার কোনো বিকল্প নেই।

এ সময় সাংবাদিকরা মোদিকে প্রশ্ন করেন, এই দুদিনে তিনি কী করলেন? উত্তরে মোদি বলেন, ‘আমি নিজের সঙ্গে সময় কাটানোর সুযোগ পেয়েছিলাম। এতদিন কী কী করলাম তা ফিরে দেখার চেষ্টা করেছি।’

নিজের দলেরও জয় চাননি কি? এই প্রশ্নের উত্তরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘না। কিছুই চাইনি। আমি বিশ্বাস করি ঈশ্বর আমাদের সকলকে যোগ্য করে এই পৃথিবীতে পাঠিয়েছেন। আমরা আমাদের যোগ্যতা দিয়েই পৃথিবীর কাজে যোগদান করতে পারি। তবে হ্যাঁ, আমি সব সময় প্রার্থনা করি যাতে আমাদের দেশের প্রতিটি মানুষকে ঈশ্বর আশীর্বাদ করেন।’

আজ রোববার লোকসভা নির্বাচনের ৫৯টি আসনের মধ্যে বারানসী থেকে প্রার্থী হয়েছেন তিনি।

শনিবার সকালেই কেদারনাথ দর্শনে হাজির হন নরেন্দ্র মোদি। সেখানকার মন্দিরে পূজাও দেন। কেদারনাথের পরিকাঠামো উন্নয়নের বিষয়টিও খতিয়ে দেখেন তিনি।  এরপর তিনি পাহাড়ি রাস্তা বেয়ে উপরে উঠতে শুরু করেন।  প্রায় দুই কিলোমিটার ট্রেক করে পৌঁছান ওই গুহায়। পাহাড়ি পথে তাকে ছাতা ও লাঠি নিয়ে উঠতে দেখা যায়। 

একটি সূত্র থেকে জানা গেছে, সংবাদমাধ্যমের অনুরোধে তিনি ধ্যানে বসার ছবি তুলতে দেন। তারপর ওই গুহায় আর কারও প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি।