advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ধান-চাল নিয়ে ‘ভানুমতির খেল’ বন্ধ করতে হবে : রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৯ মে ২০১৯ ১৫:৩৪ | আপডেট: ১৯ মে ২০১৯ ১৮:০৬
ফাইল ছবি

বর্তমান সরকার কৃষকদের পেটে লাথি মারতেই তৎপর বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। একদিকে চাল রপ্তানি করা অপর দিকে দেদারসে আমদানি করার এ ‘ভানুমতির খেল’ বন্ধ করতে হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

আজ রোববার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ সব কথা বলেন বিএনপি এ নেতা।

রিজভী বলেন, ‘কৃষকদের পথে বসিয়ে নিজেদের লোকদের টাকা লুটের সুযোগ করে দিতেই ধানের ন্যায্য মূল্য থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে কৃষকদের। কৃষকদের পেটে লাথি মারতেই তৎপর মধ্যরাতের ভোটের সরকার।’

এর আগে গতকাল শনিবার কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আবদুর রাজ্জাক বলেছিলেন, ধান কিনে ধানের দাম বাড়ানোর সুযোগ আপাতত সরকারের হাতে নেই। এই মুহূর্তে ধানের দাম বাড়ানো সম্ভব নয়।

কৃষিমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের প্রসঙ্গ টেনে রিজভী বলেন, ‘আগের রাতের ভোটের সরকারের মন্ত্রীর কাছ থেকে এরকম গণবিরোধী বক্তব্য ছাড়া আর কিছু আশা করা যায় না।’

তিনি আরও বলেন, ‘পুঁজিপতিরা তো বিশাল ঋণ মওকুফ পাচ্ছে, হাজার হাজার কোটি টাকা লুট করে খাচ্ছে, মেগা প্রকল্পের নামে দেশজুড়ে হরিলুট চলছে অথচ ১৭ কোটি মানুষের খাদ্যের যোগানদাতা অসহায় কৃষকদের ভর্তুকি দেওয়া হচ্ছে না বরং ন্যায্য মূল্য থেকে তারা বঞ্চিত হচ্ছে।’

কৃষকদের বাংলাদেশের ‘আত্মা’ উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘কৃষকরাই বাংলাদেশের আত্মা, দেশের প্রাণ। কৃষকদের রক্ষা না করলে বাংলাদেশে অভিশাপ নেমে আসবে। কৃষকরা উৎপাদন বন্ধ করে দিলে দেশে দুর্ভিক্ষ নেমে আসবে, ১৭ কোটি মানুষ না খেয়ে মারা যাবে। পৃথিবীর সকল দেশে কৃষকরা উৎপাদন করে লাভ করে, আর আমাদের দেশের কৃষকরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।’

তবে সরকারের চাল আমদানিকে ভানুমতির খেল বলে জানিয়েছেন রিজভী। তিনি বলেন, ‘একদিকে চাল রপ্তানি করা অপর দিকে দেদারসে আমদানি করার এ ভানুমতির খেল বন্ধ করতে হবে। মধ্যস্থতাকারী সুবিধাভোগীদের কাছ থেকে ধান না কিনে সরাসরি কৃষকের কাছ থেকেই ধান ক্রয় করে ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করতে হবে। মধ্যস্বত্বভোগী সিন্ডিকেটের দৌরাত্ম্য বন্ধ করতে হবে।’