advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’ ট্রেনের যাত্রা বিরতির দাবিতে সান্তাহার জংশনে অবরোধ

নওগাঁ প্রতিনিধি
১৯ মে ২০১৯ ১৭:০৮ | আপডেট: ১৯ মে ২০১৯ ১৯:০৪

ঢাকা থেকে পঞ্চগড়গামী নতুন আন্তঃনগর ট্রেন ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’র সান্তাহার জংশন স্টেশনে যাত্রা বিরতির দাবিতে আন্দোলনে নেমেছে নওগাঁ ও সান্তাহারবাসী।

সান্তাহার জংশন ষ্টেশনে পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের যাত্রাবিরতির দাবিতে সান্তাহার ষ্টেশনে ট্রেন যাত্রাবিরতি বাস্তবায়ন কমিটি গত শুক্রবার থেকে লাগাতার কর্মসূচি পালন করে আসছে।

advertisement

চলমান এ আন্দোলনের অংশ হিসেবে আজ রোববার দুপুর ১২টা ২০ মিনিট থেকে ১২টা ৫০ মিনিট পর্যন্ত ৩০ মিনিট ট্রেন অবরোধ কর্মসূচি পালন করেছে আন্দোলনকারীরা।

সান্তাহার ষ্টেশনে ট্রেন যাত্রাবিরতি বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বানে নওগাঁ, সান্তাহার ও আশেপাশের এলাকার কয়েক হাজার মানুষ ট্রেন অবরোধ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন। এ সময় আন্দোলনকারীরা ট্রেন যাত্রাবিরতির দাবিতে নানা শ্লোগান দেন। পরে ১২টা ৫০ মিনিটে ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশে সান্তাহার ষ্টেশন ছেড়ে যায়।

আগামী ২৫ মে থেকে পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনটি পঞ্চগড় থেকে ঢাকার মধ্যে চলাচল শুরু করবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গনভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ট্রেনটির উদ্বোধন করবেন। পঞ্চগড় থেকে ট্রেনটি যাত্রা করে ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর ও পার্বর্তীপুর যাত্রাবিরতি দিয়ে ঢাকায় পৌঁছাবে। জন গুরুত্বপূর্ণ জংশন ষ্টেশন হওয়া সত্ত্বেও সান্তাহার জংশন ষ্টেশনে যাত্রাবিরতি না দেওয়ায় ট্রেন যাত্রাবিরতি বাস্তবায়ন কমিটি প্রায় তিনদিন ধরে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছে।

সান্তাহার ট্রেন যাত্রাবিরতি বাস্তবায়ন কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক ও আদমদীঘি উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সাজেদুল ইসলাম চম্পা বলেন, কর্মসূচি মধ্যে ১৭ মে সান্তাহার জংশন স্টেশনে প্রতিবাদ সমাবেশ, ১৮ মে মানববন্ধন কর্মসূচি, আজ ১৯ মে আন্তঃনগর দ্রুতযান এক্সপ্রেস অবরোধ কর্মসূচি ইতিমধ্যে পালন করা হয়েছে। আগামীকাল ২০ মে সকাল থেকে সান্তাহারের ওপর দিয়ে ঢাকা, রাজশাহী, খুলনা, পার্বতীপুর, সৈয়দপুরগামী সব ট্রেন অবরোধ কর্মসূচি পালন করা হবে।

সাজেদুল ইসলাম আরও বলেন, রেলমন্ত্রী সান্তাহার জংশন স্টেশনে আন্তঃনগর পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের যাত্রাবিরতির ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত লাগাতার এ কর্মসুচি অব্যাহত থাকবে। প্রয়োজনে নওগাঁ, সান্তাহার ও আশেপাশের এলাকার মানুষদের সাথে নিয়ে আরও কঠোর আন্দোলন সংগ্রাম গড়ে তোলা হবে।