advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মাত্র ৯৯০ টাকায় ধ্যান করার ব্যবস্থা, আছে তিনবেলা খাবারও

২০ মে ২০১৯ ১২:৫৮
আপডেট: ২০ মে ২০১৯ ১২:৫৮

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের শেষ ধাপের আগে ১৫ ঘণ্টার জন্য ধ্যানে বসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। গত শনিবার উত্তরখাণ্ডের কেদারনাথ গুহায় গেরুয়া পোশাক পরে ধ্যানে বসেছিলেন তিনি।  ধ্যানরত অবস্থায় মোদির একটি ছবি প্রকাশের পর পরই তা নিয়ে রীতিমতো সমালোচনা শুরু করে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো। আর এতে সেই গুহা নিয়ে একে একে বেরিয়ে আসতে থাকে নানা তথ্য।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মোদি যে গুহায় ধ্যানে বসেছিলেন সেখানে নাকি একদিন ওই গুহায় থাকতে গেলে গুণতে হবে মাত্র ৯৯০টাকা।  এই টাকা খরচ করলেই পাওয়া যাবে সবরকমের সুবিধা।  তাই সেই গুহায় বসে ধ্যান করতে পারবেন যে কেউই।  

advertisement

উত্তরাখণ্ডের কেদারনাথে ‘রুদ্র মেডিটেশন কেভ’-এ গিয়ে ধ্যান করেছেন মোদি।  গত বছর থেকেই কেদারনাথে গুহায় বসে ধ্যান করার ট্রেন্ড আনার জন্য গুহার খরচও কমানো হয়েছে। কেদারনাথ মন্দির থেকে এক কিলোমিটার উপরে ৮ ফুট বাই ৯ ফুটের এই গুহা তৈরি করা হয়েছে।

গাড়োয়াল মন্ডল বিকাশ নিগম রয়েছে এই গুহার দায়িত্বে।  তারা জানিয়েছে, মোদির পরামর্শেই বানানো হয় এই গুহা।

প্রাথমিকভাবে এই গুহার দাম ধার্য করা হয়েছিল তিন হাজার। কিন্তু এতে গত বছর দেখা যায়, তেমনভাবে কোনো পর্যটক গুহায় যাননি।  তাই গুহার মাথাপিছু দাম কমিয়ে ৯৯০ টাকা করা হয়েছে।

উঁচু জায়গায় হওয়ায় গুহায় ঠাণ্ডাও অনেক বেশি। তাই দাম কমানো হয়েছে। এ ছাড়া আগে এই গুহা অন্তত তিনদিনের জন্য বুক করতে হতো।  কিন্তু সেই শর্তও তুলে নেওয়া হয়েছে সম্প্রতি।

গুহার বাইরের অংশে রয়েছে কাঠের জানালা। গুহার সঙ্গে ইলেকট্রিসিটি, বাথরুম ও পানীয় জলের ব্যবস্থা রয়েছে। গুহাতেই সকালের নাস্তা, দুপুরের খাবার ও নৈশ্যভোজের ব্যবস্থা করা হয়েছে। দিনে দুবার চা দেওয়ারও ব্যবস্থা আছে।  গুহার মধ্যে আছে বেল, যা বাজালেই ২৪ ঘণ্টা হাজির হয়ে যাবে একজন অ্যাটেন্ডেন্ট।

তবে এই গুহায় একজন করেই থাকতে পারে।  যদিও গুহার পরিবেশ নিরিবিলি, তবে জরুরি প্রয়োজনে ব্যবহার করার জন্য টেলিফোনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।