advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

স্বার্থান্বেষীদের কারণেই পিছিয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক
২১ মে ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২১ মে ২০১৯ ০০:৪৬
advertisement

সমুদ্রে তেল গ্যাস উত্তোলনে পিছিয়ে পড়ায় গত রবিবার বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদবিষয়ক সংসদীয় কমিটির বৈঠকে ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়। এই পিছিয়ে পড়ার পেছনে স্বার্থান্বেষী মহল জড়িত বলে মনে করেন পেট্রোবাংলার সাবেক চেয়ারম্যান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক

ড. হোসেন মনসুর। তিনি গতকাল সোমবার আমাদের সময়কে বলেন, বাংলাদেশের প্রতিবেশী মিয়ানমার সমুদ্রব্লক থেকে গ্যাস উত্তোলন করছে এবং সেই গ্যাস চীনের কাছে বিক্রি করছে। আমরা কেন এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারছি না? কারণ আমাদের এখানে স্বার্থন্বেষী মহল জড়িত। যে কোনো কাজে তারা ব্যবসা চায়।

হোসেন মনসুর বলেন, মিয়ানমার সমুদ্রে মাল্টিক্লায়েন্ট জরিপ করেছে অনেক আগে। সেই ডাটা নিয়ে তারা সমুদ্রে তেল গ্যাস উত্তোলন করছে। আমরা গত সাত আট বছরেও এ জরিপের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারছি না। তিনি আরও বলেন, আমাদের এখানে কয়েকটি কোম্পানি মাল্টিক্লায়েন্ট সার্ভে করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছিল। কিন্তু কোনো কোনো স্বার্থন্বেষী মহল তাদের নিজেদের লোক বা কোম্পানিকে কাজ পাইয়ে দিতে নানা ষড়যন্ত্র করায় শেষ পর্যন্ত এ সার্ভে করা যাচ্ছে না। ফলে দিন দিন আমরা পিছিয়ে পড়ছি। তিনি বলেন, এসব ক্ষেত্রে কোনো গোষ্ঠীর ব্যবসায়িক চিন্তাকে প্রাধান্য না দিয়ে দেশের স্বার্থ দেখতে হবে। অতিদ্রুত যোগ্য কোম্পানি নির্বাচন করে মাল্টিক্লায়েন্ট সার্ভে করে সমুদ্রের তেল গ্যাস উত্তোলনে এগিয়ে যেতে হবে। তা না হলে দেশ ক্ষতিগ্রস্ত হবে।