advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে বিশ্বে দৃষ্টান্ত বাংলাদেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
২১ মে ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২১ মে ২০১৯ ০০:৪৬
advertisement

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সব ধর্মের মানুষকে সমান সুযোগ দেওয়ার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ একটি চমৎকার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। এ দেশে সব ধর্মাবলম্বী সমান অধিকার ভোগ করেন এবং স্বাধীনভাবে নিজ নিজ ধর্ম পালন করেন। গতকাল সোমবার সকালে গণভবনে বুদ্ধপূর্ণিমা উপলক্ষে দেশের বৌদ্ধধর্মের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে এ কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোনো সম্প্রদায় কখনো যেন নিজেদের অবহেলিত মনে না করে, সেদিকে আমরা বিশেষভাবে দৃষ্টি রাখি। সেদিক থেকে আমি বলব, বাংলাদেশ আজ সমগ্র বিশ্বেই একটা দৃষ্টান্ত

স্থাপন করতে সমর্থ হয়েছে। বাংলাদেশে যারা বসবাস করেন তারা সবাই যেন যার যার ধর্ম সম্মান, নিষ্ঠার সঙ্গে শান্তিপূর্ণভাবে পালন করতে পারেন, সেটাই আমরা চাই। এ সহনশীলতা ও ভ্রাতৃত্ববোধ সবার মাঝে থাকবে, এটাই আমাদের লক্ষ্য।

সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদকে একটি বৈশ্বিক সমস্যা আখ্যায়িত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জঙ্গিবাদের সঙ্গে যারা সম্পৃক্ত, তারা জঙ্গি। তাদের কোনো ধর্ম, দেশ ও সীমানা নেই। এটা হলো বাস্তবতা। কাজেই সেই জায়গা থেকে বাংলাদেশকে এখন মুক্ত রেখে আমরা অর্থনৈতিক উন্নয়নটা করতে চাই। আমি নিজে আমার ধর্ম পালন করি, তাই অন্য ধর্মের প্রতি আমি সম্মান জানাই।

বুদ্ধপূর্ণিমা উপলক্ষে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, গৌতম বুদ্ধের যে বাণী, সেটা মানুষের

শান্তির জন্য। আর সব ধর্মের মর্মবাণীই হচ্ছে শান্তি, আমরা সেটাই বিশ্বাস করি।

এ সময় অন্যদের মধ্যে পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈ সিং, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ, দীপংকর তালুকদার এমপি, বান্দরবন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কৈশ হ্লা, রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ধূমকেতু চাকমা, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজুরী মারমা, বাংলাদেশ বৌদ্ধ কৃষ্টি প্রচার সংঘের সভাপতি শুদ্ধানন্দ মহাথের, আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ শ্রীমৎ ধর্মমিত্র মহাথের, শাক্যমুনি বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ শ্রীমৎ প্রজ্ঞানন্দ মহাথের, বাংলাদেশ বুড্ডিস্ট ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক শ্রীমৎ সুনন্দ প্রিয় ভিক্ষু, বাংলাদেশ বৌদ্ধ কৃষ্টি প্রচার সংঘের সিনিয়র সহ-সভাপতি শ্রীমৎ বুদ্ধপ্রিয় মহাথের, ঢাকা বৌদ্ধ সমিতির সহ-সভাপতি কর্নেল সুমন বড়–য়া, সাবেক শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়–য়া, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়–য়া, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী বিপ্লব বড়–য়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

advertisement