advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মোদিবিরোধীদের পরিকল্পনা ভ-ুল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
২১ মে ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২১ মে ২০১৯ ০০:৪৭
advertisement

ভারতে লোকসভা নির্বাচনের বছরখানেক আগে থেকেই মোদিবিরোধী মহাজোটের বিষয়টি বাতাসে ভাসছিল। নির্বাচনের মৌসুমে সেই মহাজোট আক্ষরিক অর্থে রূপ না পেলেও পর্দার আড়ালে দলগুলো ঠিকই জানত যে তারা এক হয়ে লড়াই করছে। কিন্তু গত রবিবার বুথফেরত জরিপের ফল প্রকাশ হতেই মোদিবিরোধীদের পরিকল্পনা অনেকটাই ভেস্তে গেছে। খবর এনডিটিভি।

রবিবার বুথফেরত জরিপের ফল প্রকাশের পর গতকাল সোমবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছেÑ উত্তরপ্রদেশের বহুজন সমাজবাদী দলের নেত্রী মায়াবতী সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে বৈঠকের যে পরিকল্পনা করেছিলেন, তা বাতিল করেছেন। গতকাল বিএসপি নেতা সতীশ চন্দ্র মিশ্র বার্তা সংস্থা এএনআইকে জানান, মায়াবতী দিল্লিতে কোনো কর্মসূচির বৈঠক নেই। তিনি লক্ষেèৗয়েই থাকবেন। এর মানে তিনি সোনিয়ার সঙ্গে বৈঠকে যোগ দিতে আসছেন না। তবে মায়াবতী সোনিয়ার সঙ্গে বৈঠক না করলেও জোটসঙ্গী অখিলেশ যাদবের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। উত্তরপ্রদেশে মায়াবতী-অখিলেশ জোট করে নির্বাচন করেছেন। বুথফেরত জরিপে দেখা যায়, উত্তরপ্রদেশে ৮০টি আসনের মধ্যে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট পেয়েছে অর্ধেকের বেশি আসন। গত লোকসভা নির্বাচনে এ রাজ্যে বিজেপি পেয়েছিল ৭১টি আসন। এবার জোট গঠন করেও অর্ধেকের বেশি আসন দখল করতে পারেনি মায়াবতী-অখিলেশ জোট। এটি তাদের পরাজয় হিসেবেই দেখতে হবে।

এদিকে বুথফেরত জরিপের ফলে প্রভাব পড়েনি তেলেগু দেশম পার্টির নেতা চন্দ্রবাবু নাইডুর গতিবিধিতে। গতকাল তিনি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক করেন। তিনি বুথফেরত জরিপের ফল মানতে নারাজ। এই ফল যদি না মেলে তা হলে করণীয় কী হবে, সেটা নিয়েই তিনি মমতার সঙ্গে আলোচনা করেন। অন্যদিকে মমতাও বুথফেরত জরিপের ফলে পাত্তা দিচ্ছেন না। তবে বিরোধীরা পাত্তা না দিলে কী হবে বিজেপি ঠিকই এই জরিপের ফল উদযাপন করা শুরু করেছে। বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ এনডিএ জোটের নেতাদের নৈশভোজের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, রবিবার প্রকাশিত সবগুলো প্রতিষ্ঠানের জরিপের ফলে দেখা যায়, বিজেপি নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে যাচ্ছে। অর্থাৎ মোদির বিরুদ্ধে সবাই এক হয়ে লড়েও মোদি জোয়ারকে রুখতে পারছে না।

advertisement