advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

যেসব চ্যানেলে দেখা যাবে বিশ্বকাপের ম্যাচ

স্পোর্টস ডেস্ক
২১ মে ২০১৯ ১৭:৩৬ | আপডেট: ২১ মে ২০১৯ ১৭:৩৯

বিশ্বকাপের বাকি আর মাত্র ৯ দিন। ইতিমধ্যে এই আসরকে ঘিরে আইসিসি প্রায় সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। অন্য যেকোনো বিশ্বকাপের চেয়ে এবারের বিশ্বকাপটা স্মরণীয় করে রাখতে চায় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রকের সবচেয়ে বড় এই সংস্থাটি। তারই অংশ হিসেবে বিশ্বকাপ নিয়ে আইসিসি একের পর এক নিত্যনতুন তথ্য জানিয়ে যাচ্ছে। এবার জানালেন ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় এই ইভেন্ট কাভারের জন্য ব্রডকাস্ট মিডিয়ার তালিকা।

২০১৯ সালের আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০০ এর বেশি দেশে দেখা যাবে। ২৫টি ভিন্ন ভিন্ন ব্রডকাস্ট পার্টনারের মাধ্যমে এই খেলা দেখানো হবে। তবে আইসিসির গ্লোবাল ব্রডকাস্ট পার্টনার হচ্ছে স্টার স্পোর্টস। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বিশ্বকাপের ম্যাচ  বাংলাদেশে সরাসরি সম্প্রচার করবে তিনটি টিভি চ্যানেল। বিটিভি ছাড়া দেশি তিন টিভি চ্যানেলে দেখা যাবে হাইলাইটস। ডিজিটাল ক্লিপসের স্বত্ব পেয়েছে ‌‘বঙ্গো বিডি’।

advertisement

দেশের তিনটি চ্যানেলে বিশ্বকাপ

বাংলাদেশে বিশ্বকাপ সরাসরি দেখা যাবে জিটিভি, মাছরাঙা ও বিটিভিতে। র‍্যাবিটহোল অ্যাপ ও তাদের ওয়েবসাইটে (www.rabbitholebd.com ) ও দেখা যাবে সরাসরি।

ভারতে এই টুর্নামেন্ট ব্রডকাস্ট করা হবে সাতটি ভিন্ন ভাষায়। তা হলো, হিন্দি, তামিল, তেলেগু, কান্নাডা, বাংলা ও মারাঠিতে। এশিয়ানেট প্লাসের মাধ্যমে ১২টি নির্ধারিত ম্যাচ ব্রডকাস্ট করা হবে মালায়ালাম ভাষাতেও।

বিশ্বজুড়ে যারা ব্রডকাস্ট করবে ক্রিকেট বিশ্বকাপ

স্টার স্পোর্টস (ভারত ও বাকি থাকা ভারতীয় উপমহাদেশ), স্কাই স্পোর্টস (যুক্তরাজ্য ও আয়ারল্যান্ড), সুপার স্পোর্টস (দক্ষিণ আফ্রিকা ও সাব সাহারান আফ্রিকা), ওএসএন (মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকা), ফক্স স্পোর্টস অস্ট্রেলিয়া ও চ্যানেল নাইন (অস্ট্রেলিয়া), উইলো টিভি (যুক্তরাষ্ট্র), স্কাই টিভি ও প্রাইম (নিউজিল্যান্ড), টেন স্পোর্টস ও পিটিভি (পাকিস্তান), ইএসপিএন (ক্যারিবিয়ান), গাজি টিভি, মাছরাঙা ও বিটিভি (সমগ্র বাংলাদেশ), এসএলআরসি (শ্রীলঙ্কা), ফক্স নেটওয়ার্ক গ্রুপ (চীন ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া), ডিজিসেল (এশিয়া প্যাসিফিক), রেডিও টেলিভিশন আফগানিস্তান (আফগানিস্তান) ও ইয়াপ টিভি (কন্টিনেন্টাল ইউরোপ ও সেন্ট্রাল এশিয়া)।

রেডিও টেলিভিশন আফগানিস্তান এর মাধ্যমে এবারই প্রথম ক্রিকেট বিশ্বকাপ সম্প্রচারিত হবে আফগানিস্তানে। চীনে ফক্স স্পোর্টস ২৫টি ম্যাচ সরাসরি সম্প্রচার করবে। সঙ্গে নয়টি ম্যাচে একটু দেরিতে সম্প্রচার করবে।

টুর্নামেন্ট চলাকালীন বিভিন্ন ডিজিটাল ক্লিপের জন্য সমর্থকদের সুযোগ করে দিয়েছে আইসিসি। ১২টি ডিজিটাল পার্টনার পেয়েছে এই স্বত্ত্ব।

ডিজিটাল ক্লিপসের লাইসেন্স পেয়েছে যারা

বিবিসি (যুক্তরাজ্য, আয়ারল্যান্ড), ইএসপিএনক্রিকইনফো (যুক্তরাজ্য, আয়ারল্যান্ড, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া ও অস্ট্রেলিয়া), হটস্টার (ভারত), ক্রিকবাজ (যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা), ক্রিকইনজিআইএফ (পাকিস্তান), দ্য পাপারে ডট কম পাওয়ার্ড বাই ডায়ালগ (শ্রীলঙ্কা), স্কাই (নিউজিল্যান্ড), বঙ্গো বিডি (বাংলাদেশ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া), ক্রিকেট গেটওয়ে (দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া ও অস্ট্রেলিয়া), ওএসএন (মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকা), বোল্ট (দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া), ও চ্যানেল টু গ্রুপ (সাব সাহারান আফ্রিকা, ক্যারিবিয়ান, যুক্তরাজ্য, আয়ারল্যান্ড, ইউরোপ, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া ও অস্ট্রেলিয়া)।

রেডিও লাইসেন্স পেয়েছে যারা

রেডিও ৪ ও গোল্ড এফএম (এমইএনএ), বিবিসি টিএমএস, ফাইভ লাইভ ও এশিয়ান নেটওয়ার্ক (যুক্তরাজ্য), মার্কুরি মিডিয়া, এবিসি ও ক্রোক মিডিয়া (অস্ট্রেলিয়া), রেডিও স্পোর্টস নিউজিল্যান্ড (নিউজিল্যান্ড), এসএবিসি (দক্ষিণ আফ্রিকা), সিথা এফএম (শ্রীলঙ্কা), হাম এফএম (পাকিস্তান), বাংলাদেশ বেতার (বাংলাদেশ)।

বেশ কিছু নির্বাচিত ম্যাচ দেখানো হবে ভারতের আইনক্স, আরব আমিরাত ও বাহরাইনের নভো ও আমিরাতের রিল সিনেপ্লেক্সে।