advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ভৌতিক আবেদনে বিপাকে শত শত শিক্ষার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক
২২ মে ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২২ মে ২০১৯ ০৯:১৬

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন করতে গিয়ে বিপাকে পড়েছেন শত শত শিক্ষার্থী। অনেকেই জানিয়েছেন, অনলাইনে আবেদন করতে গিয়ে দেখেন কে বা কারা আগেই তাদের অজান্তে আবেদন করে দিয়েছেন। ফলে তারা জানেন না, তাদের পছন্দের তালিকায় কোন কলেজের নাম দেওয়া হয়েছে। এমন ভৌতিক আবেদনের খপ্পরে পড়ে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে সম্প্রতি আবেদন করেছেন পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থী ও অভিভাবক।

বোর্ড জানিয়েছে, ভৌতিক আবেদনকারীদের ব্যাপারে তারা খোঁজ নিচ্ছেন। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীদের পুরনো আবেদন বাতিল করে নতুনভাবে আবেদনের সুযোগ দেওয়ার ব্যবস্থা হচ্ছে। এ বিষয়ে গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক ড. হারুন অর রশিদ জানান, একাদশের ভর্তি কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর থেকে প্রতিদিন ভুয়া আবেদনের অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে লিখিত আবেদন রাখা হচ্ছে। ভুয়া আবেদনের বিষয়ে এ পর্যন্ত পাঁচ শতাধিক লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসব ভুয়া আবেদনকারীকে শনাক্তের কাজ শুরু হয়েছে। দ্রুত তাদের আইনের আওতায় আনা হবে। আর শিক্ষার্থীদের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তাদের আবেদন ঠিক করে দেওয়া হচ্ছে।

advertisement

বোর্ড সূত্র জানায়, অনলাইন ও এসএমএসের মাধ্যমে গত ১২ মে দুপুর থেকে গতকাল দুপুর পর্যন্ত মোট ৩ লাখ ৬৫ হাজার ২৭৩ শিক্ষার্থী একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন করেছেন। আগামী ২৩ মে পর্যন্ত প্রথম ধাপের আবেদন করা যাবে। ১০ জুন প্রথম ধাপের আবেদনকারীদের ফল প্রকাশ করা হবে। দ্বিতীয় পর্যায়ে আবেদন করা যাবে ১৯ ও ২০ জুন। ২১ জুন তাদের আবেদনের ফল প্রকাশ করা হবে। তৃতীয় ধাপে আবেদন নেওয়া হবে ২৪ জুন। ফল প্রকাশ করা হবে ২৫ জুন। নির্বাচিত কলেজে শিক্ষার্থীদের ভর্তি হতে হবে ২৭ থেকে ৩০ জুন। ১ জুলাই থেকে একাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরু হবে।