advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ইন্দোনেশিয়ায় নির্বাচনের ফল নিয়ে সহিংসতা, নিহত ৬

২২ মে ২০১৯ ১৪:১৫
আপডেট: ২২ মে ২০১৯ ১৪:১৫

ইন্দোনেশিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করে রাজপথে অবস্থানরত বিক্ষোভকারী ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছেন আরও ২০০ জন।  গ্রেপ্তার করা হয়েছে প্রায় দুই ডজন ব্যক্তিকে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি বলছে, গতকাল মঙ্গলবার নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন।  ফল অনুসারে, পুনর্নির্বাচিত হয়েছেন ইন্দোনেশিয়ায় প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদো।  কিন্তু তার জয় প্রত্যাখ্যান করে মঙ্গলবার রাজধানী জাকার্তায় তার বিরুদ্ধে এই বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।

advertisement

স্থানীয় গণমাধ্যমে গভর্নর আনিয়েস বাসওয়েদান জানান,সহিংসতায় অন্তত ছয়জন নিহত হয়েছেন।  আহত হয়েছেন আরও ২০০ জন।

শুরুতে জাকার্তায় বেশ শান্তিপূর্ণভাবেই শুরু হয় উইদোদো বিরোধী বিক্ষোভ। কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যেই তা সহিংস রূপ নেয়।  পুড়িয়ে দেওয়া হয় গাড়ি,পুলিশের উদ্দেশ্যে ছোড়া হয় আতশবাজি।  পুলিশও পাল্টা জবাবে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে ছুড়ে কাঁদানে গ্যাস।

গত এপ্রিল মাসের ১৭ তারিখ ইন্দোনেশিয়ায় সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল মঙ্গলবার প্রকাশিত এ ফলাফল অনুসারে, দীর্ঘদিনের প্রতিদ্বন্দ্বী গ্রেট ইন্দোনেশিয়া মুভমেন্ট পার্টি-র (জেরিন্ড্রা)  প্রাবোয়ো সুবিয়ান্তোকে পরাজিত করে পুনরায় ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন ডেমোক্র্যাটিক পার্টি অব স্ট্রাগলের (পিডিআই-পি) প্রার্থী উইদোদো।  ৫৫ দশমিক ৫ শতাংশ ভোট পেয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিত করে দ্বিতীয় দফায় ক্ষমতায় এসেছেন উইদোদো।  এইবারের নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা ছিল ১৯ কোটি ২০ লাখের বেশি মানুষ।

স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেলগুলোতে বলা হয়েছে,বিক্ষোভকারী ও পুলিশদের মধ্যে শহরের বেশ কয়েকটি জায়গায় সংঘর্ষ হয়েছে। পুলিশ মুখপাত্র দেদি প্রাসেত্যিয়ো বলেন,সব মিলিয়ে ২০ জনের বেশি বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিক্ষোভকারীদের দমাতে মাঠে থাকা পুলিশদের গুলি সরবরাহ করা হয়নি।

তবে আগ থেকেই সহিংসতার আশঙ্কায় জাকার্তাজুড়ে ৩০ হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল বলে তিনি আরও জানান।