advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

নিজের মেয়েকেও ফিরিয়ে দিলেন রেলমন্ত্রী!

নিজস্ব প্রতিবেদক
২২ মে ২০১৯ ১৫:৩৩ | আপডেট: ২৩ মে ২০১৯ ০১:৩০

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে গতকাল বুধবার সকাল থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু করেছে রেল কর্তৃপক্ষ। টিকিট বিক্রি চলবে আগামী ২৬ মে পর্যন্ত। নির্বিঘ্নে ঈদে বাড়ি ফিরতে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট পেতে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজনকে একটি তালিকা দিয়েছিলেন তার মেয়ে। কিন্তু সেই তালিকা গ্রহণ না করে ফিরিয়ে দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী নিজেই।

এ বিষয়ে রেলমন্ত্রী বলেন, ‘আমার মেয়ের কাছে অনেকে আগাম টিকিটের অনুরোধ করেছেন। মেয়েও সে অনুযায়ী একটি তালিকা আমাকে দিয়েছিল। কিন্তু আমি তা গ্রহণ করিনি, ফিরিয়ে দিয়েছি। বলেছি, এভাবে অগ্রিম টিকিট পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। মোবাইল অ্যাপস ব্যবহার করো, এ অনুরোধের কোনো প্রয়োজন নেই।’

টিকিটের জন্য মন্ত্রী হিসেবে তার ওপর বেশ চাপ রয়েছে উল্লেখ করে নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, ‘কিন্তু আমাকে একটা নিয়মের মধ্য দিয়ে চলতে হয়। কোনো অনিয়মকে তো আর নিয়মে পরিণত করা যায় না।’

জানা গেছে, সচিবের কাছেও তার নিকটাত্মীয়দের টিকিটের জন্য অনেক অনুরোধ এসেছে। তিনিও সবাইকে ফিরিয়ে দিয়েছেন। তারা দু’জনই আগাম টিকিট নিয়ে বেশ চাপে রয়েছেন। এছাড়া মন্ত্রীর একান্ত সচিবও (পিএস) টিকিটের অনুরোধ করেছেন। তিনি তার অফিস কক্ষের দরজায় লিখে রেখেছেন, ‘এখানে টিকিটের সুপারিশ করা হয় না।’

এদিকে টিকিট বিক্রির প্রথম দিনেই অনলাইনে টিকিট কেনা নিয়ে ভোগান্তির কথা জানিয়েছেন যাত্রীরা। অনলাইন অচল হয়ে যাওয়ায় সেখান থেকে টিকিট ক্রয় করতে পারছেন না তারা। যার ব্যর্থতার দায়ভার ইতিমধ্যে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন স্বীকার করেছেন।

এছাড়া, অনলাইনে সব টিকিট বিক্রি না হলে ২৭ তারিখ থেকে সেগুলো কাউন্টারের মাধ্যমে করা হবে বলেও জানান নুরুল ইসলাম সুজন।

এবার ঈদ উপলক্ষে ৩৩টি আন্তঃনগর ট্রেনের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে ১২টি ঈদ স্পেশাল ট্রেন। অতিরিক্ত যাত্রীবহনে ১৩৮টি যাত্রীবাহী বগিও সংযুক্ত করা হবে। ৫০ শতাংশ টিকিট অনলাইনে বিক্রি করবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ রেলওয়ে।